চুল রপ্তানি না করে পণ্য তৈরি করে বাইরের দেশে বিক্রি করুন

দামুড়হুদার কুতুবপুরে হেয়ার প্রসেসিং কারাখানায় পরিদর্শনকালে জেলা প্রশাসক

কার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি: দামুড়হুদা উপজেলার কার্পাসডাঙ্গা ইউনিয়নের কুতুবপুর গ্রামের বিভিন্ন চুলের কারখানা পরিদর্শন করেছেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন আহমেদ। গতকাল শনিবার দুপুর ১টার দিকে তিনি এসব কারখানায় পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে তিনি চুল ব্যবসায়ীদের উদ্দ্যেশে বলেন, বিদেশিরা এই চুল দিয়ে কি পণ্য তৈরি করে সেটা আপনারা জানুন। তারা চুল দিয়ে যে জিনিসটা তৈরি করছে সেটা আপনারা তৈরি করে তাদের কাছে বিক্রি করুন। তাহলে আপনারা আরও বেশি টাকা উর্পাজন করতে পারবেন। আপনি আরও লাভবান হবেন দেশও লাভবান হবে। পরিদর্শনের সময় তিনি শ্রমিকদের উদ্দ্যেশে বলেন, আপনারা চুলের কাজের সময় মুখে মাস্ক ব্যবহার করবেন তাহলে শরীরে জীবাণু ঢুকবে না। চুল ব্যবসায়ীরা আর্থিকভাবে স্বচ্ছল হওয়াতে তিনি সন্তষ্ট প্রকাশ করেন। পরিদর্শনের সময় তিনি তার ব্যবহৃত মোবাইল থেকে ইন্টরনেটের মাধ্যমে চুল থেকে যে পণ্য তৈরি হয় সেগুলো দেখান। সীমান্তের মানুষ চোরাকারবারীর পথে না গিয়ে চুলের ব্যবসার প্রতি বেশি ঝুঁকেছে এবং হাজার হাজার নারী পুরুষ কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করে দিয়েছে তার জন্য তিনি ব্যবসায়ীকদের ধন্যবাদ জানান। পরিদর্শনের সময় বাংলাদেশ হেয়ার প্রসেসিং সমবায় সমিতির সভাপতির হাসিবুজ্জামান শহিদ বিশ্বাস জেলা প্রশাসক জানান, এলাকার চুল ব্যবসায়ীরা মাঝে মধ্যে দেশের বিভিন্ন জায়গায় পুলিশি হয়রানির শিকার হয়। ব্যবসায়ীদের কাছে মোটা অঙ্কের চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না দিলে মামলার ভয় দেখায়। বিশেষ করে মাগুরা জেলার কানাইখালী ঘাটের ওপারের হাইওয়ে পুলিশ হয়রানি বেশি করে। জেলা প্রশাসক পুলিশের হয়রানির অভিযোগ শুনে বিষয়টি দু একদিনের মধ্যে সমাধানের জন্য আশ্বস্ত করেন ব্যবসায়ীকদের। পরিদর্শনের সময় কুতুবপুর গ্রামের চুল ব্যবসায়ী মনি ঘোটা বলেন, আজ থেকে দশ বছর আগে আমি পরের জমিতে জনে যেতাম। কিছু টাকা সংগ্রহ করে আমি চুল ব্যবসায় আসি। আজ আমি ৮ বিঘা জমি কিনেছি, ভালো একটি বাড়ি করেছি, ছেলে মেয়েকে প্রতিষ্ঠিত করেছি। আমার কারখানায় ৫০ জন শ্রমিক কাজ করে। সকল শ্রমিকদের প্রত্যেকদিন সর্বমোট প্রায় ২০ হাজার টাকা পারিশ্রমিক দিয়ে থাকি। পরিদর্শনের সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আব্দুর রাজ্জাক, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন, (শিক্ষা ও আইসিটি), দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রফিকুল হাসান, নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইফফাত আরা জামান উর্মি, দামুড়হুদা উপজেলা সমবায় সহকারি পরিদর্শক সাহারুল ইসলাস, হেয়ার প্রসেসিং সমবায় সমিতির সম্পাদক লিয়াকত আলী মেম্বার প্রমুখ।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *