চীনে টাইফুন ফিতোর আঘাতে পাঁচজনের প্রাণহানি

মাথাভাঙ্গা মনিটর: চীনে শক্তিশালী টাইফুন ফিতোর আঘাতে পাঁচজনের প্রাণহানি ঘটেছে। গৃহহীন হয়েছে কয়েকশ মানুষ। দক্ষিণপশ্চিম চীনে বন্যার পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে শতাধিক বাড়িঘর। টাইফুনের কারণে সৃষ্ট ঝড় ও ভারী বর্ষণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে দেশটির পরিবহন ব্যবস্থা। বন্ধ করা হয়েছে বিমান ও নৌ বন্দর। মুষলধারে বৃষ্টির কারণে ফুজিয়ান প্রদেশে স্থানীয় সরকার বন্যা নিয়ন্ত্রণে সর্বোচ্চ জরুরি অবস্থা গ্রহণ করেছে। প্রদেশ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এক লাখ ৭৭ হাজার মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়েছে। ৩০ হাজার মাছ ধরার নৌকাকে উপকূলে ফিরিয়ে আনা হয়েছে। ফুজিয়ান প্রদেশের ফুডিং শহরে সোমবার ফিতো ১৫১ কিলোমিটার বেগে আঘাত হানে। ওইদিনই সাংহাইয়ের দক্ষিণে ঝেজিয়াং প্রদেশে বিমান ও রেল চলাচল স্থগিত করা হয়। ঝড় ও বন্যায় এনঝৌ  শহরে এক হাজার সাতশ বাড়ি ও ৪৬ হাজার আটশ হেক্টর আবাদি জমি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। দুটি প্রদেশ আর্থিকভাবে প্রায় দু বিলিয়ন মার্কিন ডলার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর আগে দেশটির দক্ষিণে টাইফুন উসাগির আঘাতে কমপক্ষে ২৫ জন নিহত হয়। এরারেরটা নিয়ে এ বছর চীনে ২৩ বারের মতো টাইফুন আঘাত হানলো।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *