বিশ্ব টুকিটাকি

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এখন বইছে নির্বাচনী হাওয়া। ট্রাম্প আর হিলারি নিয়ে মেতেছেন সবাই। এরই মধ্যে বর্তমান প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার বিদায়ের সময়ও ঘনিয়ে এসেছে। তো প্রেসিডেন্ট পদ ও হোয়াইট হাউসের বিলাসী জীবন ছাড়ার পর কি করবেন তিনি? এমন প্রশ্নের উত্তরে মজার তথ্য জানালেন ওবামা। নতুন চাকরি খুঁজতে নিজেকে লিংকডইনে জুড়ে দিবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। গত সোমবার সিলেক্টইউএসএ ফরেইন ইনভেস্টমেন্ট সামিটে দেয়া বক্তৃতায় ওবামা বলেন, আর মোটে সাত মাস, কিংবা তেমনই, এরপর নিজেকে জব মার্কেটে ছেড়ে দেব। লিংকডইনে সক্রিয় থাকব, দেখি কী কাজ পাওয়া যায়। অনুষ্ঠানে নিজের কৈশোরের চাকরি জীবনের স্মৃতিচারণও করেন ওবামা। হনলুলুতে বাসকিন-রবিন্স আইসক্রিমের বিক্রেতা হিসেবে তখন কাজ করতেন তিনি। ওবামা বলেন, আমার প্রথম চাকরি একেবারেই আকর্ষণীয় ছিলো না। তবে সেই চাকরি আমাকে অনেক মূল্যবান শিক্ষা দিয়েছে। যেমন দায়িত্বশীলতা, কঠোর পরিশ্রম, কাজের সাথে পরিবার, বন্ধু, স্কুলজীবনের সমন্বয়।

মাদার তেরেসাকে ষড়যন্ত্রকারী হিসেবে অভিহিত করলেন বিজেপি এমপি

মাথাভাঙ্গা মনিটর: নোবেল পুরস্কারজয়ী মাদার তেরেসাকে ষড়যন্ত্রকারী হিসেবে অভিহিত করেছেন ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপি এমপি যোগী আদিত্যনাথ। তার মতে মাদার তেরেসা ভারতকে খ্রিস্টান রাষ্ট্র বানানোর ষড়যন্ত্রের অংশ ছিলেন। উত্তর প্রদেশের গোরক্ষপুর থেকে নির্বাচিত এই এমপি বলেন, তেরেসা ভারতকে খ্রিস্টান ধর্ম ছড়ানোর ষড়যন্ত্রের অংশ ছিলেন। এই খ্রিস্টান করণের কারণে ভারতের উত্তর-পূর্বের অরুণাচল, ত্রিপুরা, মেঘালয় ও নাগাল্যান্ড রাজ্যে বিচ্ছিন্নতাবাদ ছড়িয়েছে। মাদার তেরেসা একজন আলবেনীয়-বংশোদ্ভুত ভারতীয় ক্যাথলিক সন্তু। ১৯৫০ সালে কলকাতায় তিনি মিশনারিজ অফ চ্যারিটি নামে একটি সেবা প্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করেন। সুদীর্ঘ ৪৫ বছর ধরে তিনি দরিদ্র, অসুস্থ, অনাথ ও মৃত্যুপথযাত্রী মানুষের সেবা করেছেন। ১৯৭৯ সালের ১৭ অক্টোবর তিনি তার সেবাকার্যের জন্য নোবেল শান্তি পুরস্কার ও ১৯৮০ সালে ভারতের সর্বোচ্চ অসামরিক সম্মান ভারতরত্ন লাভ করেন। ১৯৯৭ সালে তার মৃত্যুর সময় বিশ্বের ১২৩টি রাষ্ট্রে এইচআইভি/এইডস, কুষ্ঠ ও যক্ষার চিকিৎসাকেন্দ্র, ভোজনশালা, শিশু ও পরিবার পরামর্শ কেন্দ্র, অনাথ আশ্রম ও বিদ্যালয়সহ মিশনারিজ অফ চ্যারিটির ৬১০টি কেন্দ্র বিদ্যমান ছিলো।

যুদ্ধাপরাধের দায়ে কঙ্গোর বিদ্রোহী নেতার জেল

মাথাভাঙ্গা মনিটর: যুদ্ধাপরাধ এবং যৌন সহিংসতার অভিযোগে কঙ্গোর সাবেক বিদ্রোহী নেতা জন-পিয়েরে বেম্বারকে ১৮ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে (আইসিসি)। গত ২০০২ এবং ২০০৩ সালে প্রতিবেশী মধ্য আফ্রিকান রিপাবলিক (সিএআর) এ মার্চে সংঘটিত অপরাধের অভিযোগে তিনি দোষী সাব্যস্ত হন। অভিযোগে বলা হয়েছে, বিদ্রোহীদেরকে মানুষ হত্যা ও ধর্ষণ থেকে বিরত রাখতে বেম্বা ব্যর্থ হয়েছিলেন। তবে বেম্বার পক্ষ সমর্থনকারীরা ইতোমধ্যেই আদালতের এ সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে আপিল করবে বলে জানিয়েছে।
ডেমোক্র্যাটিক রিপাবলিক অব কঙ্গোর এক সময়কার ভাইস প্রেসিডেন্ট বেম্বা দেশটির গৃহযুদ্ধের সময় এমএলসি বিদ্রোহী গ্রুপের নেতৃত্বে ছিলেন।

বৃদ্ধের ডেরায় ১২ নারী : মেটাতেন যৌন লালসা

মাথাভাঙ্গা মনিটর: রতিবেশির ফোন পেয়ে যুক্তরাষ্ট্রের পেনিনসিলভেনিয়ার একটি বাসা থেকে পুলিশ ১২ নারীকে উদ্ধার করেছে। গত বৃহস্পতিবারের এ ঘটনায় লি কাপলান (৫১) নামে এক ব্যক্তিকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। তবে পুলিশ এখন পর্যন্ত কেন ওই বাড়িতে ১২ বছরের কম বয়সী ওই নারীদের রাখা হয়েছিলো, তার কোনো কূলকিনারা করতে পারছে না। ধারণা করা হচ্ছে, সেখানে তাদের দিয়ে লি কাপলান তার যৌন লালসা মেটাতেন। উদ্ধারদের মধ্যে ১৮ বছর বয়সী এক তরুণী রয়েছেন, যাকে দুটি কন্যা সন্তানসহ উদ্ধার করা হয়েছে।
এ ঘটনায় লি কাপনাল ছাড়াও ওই তরুণীর মা-বাবাকে পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। পরে তরুণীর বাবা পুলিশকে জানিয়েছেন, তিনি এবং তার স্ত্রী আইনি বিষয়ক অনলাইনে খোঁজ পেয়ে মেয়েকে লি কাপলানকে উপহার হিসেবে দেন। এরপর মাত্র ১৪ বছর বয়সে সে সেখানে অন্তঃসত্তা হয়। পুলিশের ধারণা, বাকি নয়জনও সম্পর্কে পরস্পরের বোন এবং ওই দম্পত্তির সন্তান। গত এক বছর ধরে প্রতিবেশীরা লি কাপলানের সন্দেহজনক বাড়ির বিষয়ে পুলিশে অভিযোগ করছিলো। এরপর শিশু অধিকার কল্যাণ এক সংস্থাও প্রতিবেদন করে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *