গোয়ালন্দ মেলে অজ্ঞানপার্টি : খুলনার চামড়াব্যবসায়ী চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে

স্টাফ রিপোর্টার: খুলনার চামড়াব্যবসায়ী আক্তার হোসেন গোয়ালন্দ মেলে উঠে অজ্ঞানপার্টির খপ্পরে পড়েছেন। গতকাল বুধবার তাকে চুয়াডাঙ্গা রেলস্টেশন থেকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। জ্ঞান না ফেরায় আক্তার হোসেনের নিকট থেকে অজ্ঞানপার্টির সদস্যরা কতো টাকা হাতিয়ে নিয়েছে তা নিশ্চিত করে জানা সম্ভব হয়নি।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা রেলওয়ে স্টেশনের প্লাটফর্মে গতকাল বুধবার ভোরে অজ্ঞান অবস্থায় পড়েছিলেন এক ব্যক্তি। তাকে জিআরপি পুলিশসহ স্থানীয়রা উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করান। পকেটে থাকা কাগজপত্র দেখে তার বাড়ির মোবাইলফোনে কল করে অজ্ঞান হওয়ার খবর জানানো হয়। এক ছেলেসহ নিকটাত্মীয়স্বজন চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ছুটে আসেন। তারা বলেন, খুলনা শেখপাড়ার মৃত আলাউদ্দীনের ছেলে আক্তার এলাকার বিভিন্ন শহর থেকে চামড়া কিনে ঢাকায় বিক্রি করেন। গতপরশু রাত ২টার দিকে খুলনা থেকে  ছেড়ে আসা নকশীকাঁথা এক্সপ্রেস তথা গোয়ালন্দ মেলে উঠেন। ঢাকার উদ্দেশেই তিনি বাড়ি থেকে বের হয়েছিলেন। কাছে কিছু টাকা ছিলো। তবে কতো টাকা ছিলো তা নিশ্চিত করে বলতে পারেননি নিকটজনেরা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *