গুয়াতেমালায় যাত্রীবাহী বাস নদীতে : ৪৪ জন নিহত

মাথাভাঙ্গা মনিটর: মধ্য আমেরিকার দেশ গুয়াতেমালায় একটি যাত্রীবোঝাই বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নদীর গভীর খাদে পড়ে তিনজন শিশুসহ অন্তত ৪৪ জন নিহত হয়েছে। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো গতকাল মঙ্গলবার জানিয়েছে, স্থানীয় সময় গত সোমবার বিকেলে দেশটির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় এলাকার সান মার্টিন জিলোটপেক শহরের কাছে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দেশটির জরুরি উদ্ধার কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, দুর্ঘটনাস্থলের কাছে একটি অস্থায়ী উদ্ধার কেন্দ্রের পাশে হতাহতদের আত্মীয়রা ভিড় জমিয়েছেন। নদীর খাদ থেকে লাশ উদ্ধার করে অস্থায়ী মর্গে রাখা হয়েছে, যাতে আত্মীয়রা তাদের স্বজনদের চিহ্নিত করতে পারেন।উদ্ধারকারী দলের মুখপাত্র মারিও ক্রুজ জানিয়েছেন, ৪৬ জনকে উদ্ধার করে নিকটস্থ হাসপাতালগুলোতে ভর্তি করা হয়েছে। ক্রুজ আরও জানান, দুর্ঘটনাকবলিত বাসটিতে ৫৪ জন যাত্রী বহনের সক্ষমতা থাকলেও রাজধানী গুয়াতেমালা সিটিগামী বাসটিতে ৯০ জন যাত্রী ওঠানো হয়। সান মার্টিন জিলোটপেক শহরের মেয়র ওটো ভিয়েলম্যান বলেন, প্রথমে একটি দেয়ালের সাথে জোরে ধাক্কা খেয়ে নদীর গভীর খাদে পড়ে যায় বাসটি। গুয়াতেমালার এ সড়কটি বিপজ্জনক বলে পরিচিত। মেয়র ওটো জানান, ২০০০ সালে ঠিক এ সড়কেই একই ধরনের বাস দুর্ঘটনায় ৪০ জন লোক মারা যায়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *