গাংনীর ষোলটাকা ইউনিয়নের উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী চুড়ান্ত

 

 

গাংনী প্রতিনিধি : মেহেরপুর গাংনী উপজেলার ষোলটাকা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে উপনির্বাচনে বিএনপির পর একক প্রার্থী চূড়ান্ত করেছে আওয়ামী লীগ। গতসোমবার দুপুরে আয়ুব আলীকে দলীয় প্রার্থী ঘোষণা করেন মেহেরপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মকবুল হোসেন। গতকাল মনোনয়নপত্র জমাদানের শেষ দিন পর্যন্ত আয়ুব আলীসহ তিন জন মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। অপর দুজন হচ্ছেন- বিএনপি মনোনীত প্রার্থী প্রয়াত চেয়ারম্যান সাবদাল হোসেন কালুর ছেলে মনিরুজ্জামান মনি ও বিএনপি নেতা আল হেলাল।বেলা ১১টারদিকে মকবুল হোসেনের বাস ভবনে এলাকার বিভিন্ন নেতৃবৃন্দের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা শেষে উপজেলা আওয়ামী লীগের অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আয়ুব আলীকে একক প্রার্থী মনোনীত করা হয়। পরে এলাকার সমর্থকদের সাথে নিয়ে উপজেলা পরিষদ চত্বরে আসেন আয়ুব আলী। নির্বাচনের দায়িত্বপ্রাপ্ত রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাচন অফিসার সরওয়ার হোসেনের কাছে দুপুর ১টার দিকে তিনি মনোনয়নপত্র জমা দেন। এসময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন মেহেরপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য মকবুল হোসেন, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম শফিকুল আলম, জেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম শাহ, মুক্তিযুদ্ধের শহীদ স্মৃতি পাঠাগারের সহসভাপতি ইয়াছিন রেজা, জেলা যুবলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সোহেল আহম্মেদ, গোলাম সাকলায়েন ছেপু, যুবলীগ নেতা আল ফারুক, উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক আনোয়ার পাশাসহ নেতৃবৃন্দ। আনোয়ার পাশা ও আকছেদ আলী মনোনয়নপত্র উত্তোলন করলেও দলীয় সিদ্ধান্তে তারা জমা প্রদান করেননি বলে জানান আনোয়ার পাশা।এদিকে মোট ৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র উত্তোলন করলেও জমা দিয়েছেন তিন জন। আওয়ামী লীগের প্রার্থী আয়ুব আলী ও বিএনপি প্রার্থী মনিরুজ্জামান মনির মধ্যেই মূলত ভোট যুদ্ধ হবে বলে মনে করছেন ভোটাররা। বিএনপি নেতা আল হেলালের মনোনয়নপত্র জমা কৌশলগত। তিনি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করবেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।

ঘোষিত তফশিল অনুযায়ী ভোট গ্রহণ ২৪ আগষ্ট। ৭ আগষ্ট বাছাই এবং ১১ আগষ্ট মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের দিন ধার্য করা হয়েছে। নির্বাচন ঘিরে এলাকায় অনানুষ্ঠানিক প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন প্রধান দুই প্রার্থী। নির্বাচনী এলাকায় বইছে ভোটের হাওয়া। চায়ের দোকানের আড্ডা থেকে শুরু করে পাড়ার গৃহিণীদের গল্পের আসরেও চুলচেরা বিশ্লেষণ চলছে। ষোলটাকা ইউপি চেয়ারম্যান বিএনপি নেতা মানিকদিয়া গ্রামের সাবদাল হোসেন কালু গত ৯ ফেব্রুয়ারি হৃদক্রিয়া বন্ধ হয়ে ঢাকার একটি হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। এতে চেয়ারম্যান পদটি শূন্য ঘোষণা করে নির্বাচন অফিস।

Leave a comment

Your email address will not be published.