গাংনীর মুন্দা গ্রাম থেকে ২৪টি গোখরা সাপ উদ্ধার

 

 

গাংনী প্রতিনিধি: মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার মুন্দা গ্রামের রেজাউল হকের বাড়ির একটি ঘর থেকে ২৪টি বিষধর সাপ উদ্ধার করেছেন এক সাপুড়ে। গতকাল শনিবার বিকেলে স্থানীয় এক সাপুড়ে ঘরের মেজের মাটি খুঁড়ে সাপগুলো বের করেন। গতকাল সকালে রেজাউল হকের বাড়ির শোয়ার ঘরের মেঝেতে একটি সাপ দেখতে পেয়ে পরিবারের সদস্যরা সাপুড়েকে খবর দেয়। দুপুর থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ঘরের মেঝে খুঁড়ে একেকটি করে ২৪টি বিষধর সাপ বের করেন ওই সাপুড়ে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে আশপাশের গ্রামের উৎসুক মানুষের ভিড় পড়ে।

রেজাউল হকের ভাই আশরাফুল হক মন্টু জানান, সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কাজের মেয়েটি ঘর পরিষ্কার করার সময় ঘরের মেঝেতে বড় গোখরা সাপটি দেখতে পেয়ে চিৎকার দিলে প্রতিবেশীরা ছুটে আসে। কিন্তু ততোক্ষণে সাপটি গর্তে লুকিয়ে পড়ে। অনেক খুঁজেও পাওয়া যায়নি। পরে দুপুরের দিকে সাপুড়ে ডেকে আনার পর ঘরের মেঝে খুঁড়ে একটি পূর্ণবয়স্ক গোখরা ও ২৩টি বাচ্চা উদ্ধার করে। বাচ্চাগুলো লম্বায় ১২-১৮ ইঞ্চি পর্যন্ত। পাকা ঘর হলেও মেঝেতে ফাটল ছিলো। ওই ফাটলের মধ্যে মা গোখরা ডিম দিয়ে বাচ্চা ফুটিয়ে অবস্থান করছিলো বলে জানান সাপ উদ্ধারকারী সাপুড়ে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *