গাংনীতে সাবেক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে মামলা : ক্ষোভ

 

গাংনী প্রতিনিধি: মেহেরপুর গাংনীতে বাস পোড়ানোর ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় সাবেক ইউপি সদস্য রবিউল ইসলামকে আসামি করায় ক্ষোভ বিরাজ করছে ধর্মচাকী গ্রামসহ এলাকার মানুষের মাঝে। গত ২৭ এপ্রিল মেহেরপুর-কুষ্টিয়া সড়কের গাংনীর ফতাইপুর নামক স্থানে কুষ্টিয়া থেকে মেহেরপুরগামী যাত্রীবাহী একটি বাসের চাকায় পিষ্ট হয়ে ধর্মচাকী গ্রামের সাবেক সেনা সদস্য নিহত হন। রেজিস্ট্রেশনবিহীন মোটরসাইকেল চালক সাবেক সেনা সদস্য পুলিশের চেকপোস্ট এড়াতে দিয়ে দুর্ঘটনার শিকার হন। এতে উত্তেজিত জনতা দায়িত্বপ্রাপ্ত পুলিশের এক এসআইর বিরুদ্ধে ফুঁসে ওঠে। পরে তারা বাসটিতে আগুন ধরিয়ে দেয়। উত্তেজনা প্রশমন ও বাস রক্ষায় আপ্রাণ ভূমিকা পালন করেছিলেন সাবেক ইউপি সদস্য রবিউল ইসলাম। যা ঘটনার সংবাদ সংগ্রহের জন্য উপস্থিত সাংবাদিক ও গাংনী থানার একাধিক পুলিশ কর্মকর্তার সামনেই ঘটে। কিন্তু গাড়িমালিক রোকনুজ্জামান স্বপন বাদী হয়ে গত ২৯ এপ্রিল গাংনী থানায় ৫ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা আরো বেশ কয়েকজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেন। রবিউল ইসলামের নেতৃত্বে গাড়ি পোড়ানো হয়েছে বলে মামলার এজাহারে অভিযোগ করেন বাদী।

এদিকে মামলাটি রেকর্ড করেছে গাংনী থানা। রবিউল ইলামকে আসামি করার বিষয়টি নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করেছেন স্থানীয় সাংবাদিকসহ প্রত্যক্ষদর্শী এলাকাবাসী। বাসমালিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে রবিউল ইসলামকে আসামি করেছেন বলে জানান ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী কয়েকজন। যে ব্যক্তি বাস রক্ষা ও পরিস্থিতি সামাল দিতে চেষ্টা করেছেন তিনিই এখন মামলার আসামি হওয়ায় ক্ষোভ বিরাজ করছে এলাকাবাসীর মাঝে। ঘটনার সময় উপস্থিত সাংবাদিক ও এলাকার মানুষের ধারণ করা ভিডিওচিত্র এবং ছবি যাচাই করলে দোষীদের শনাক্ত করা যাবে বলেও মন্তব্য করেন ভুক্তভোগীরা। এদিকে ঘটনাটি সুষ্ট তদন্ত সাপেক্ষে প্রকৃতভাবে যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে আদালতে চূড়ান্ত প্রতিবেদন দেয়া হবে এবং কোনো নিরপরাধ মানুষ হয়রানি হবে না বলে জানান মামলা তদন্ত সংশ্লিষ্টরা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *