গাংনীতে ছাত্রীকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় ভাইকে কুপিয়ে জখম

0
41

উত্ত্যক্তকারী রিকোর এক বছরের কারাদণ্ড

 

গাংনী প্রতিনিধি: মেহেরপুরের গাংনী ডিগ্রি কলেজের এক ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত করার অপরাধে মওদুদ আহম্মেদ রিকো (২০) নামের এক যুবককে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল শনিবার দুপুরে গাংনী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আব্দুস সালামের ভ্রাম্যমাণ আদালত এ আদেশ প্রদান করেন। এদিকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় ছাত্রীর ভাইকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে রিকো ও তার সহযোগীরা। মওদুদ আহম্মেদ রিকো গাংনীর শিশিরপাড়া গ্রামের ঠাণ্ডু মিয়ার ছেলে এবং খুলনা পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে ৬ষ্ঠ সেমিস্টারের ছাত্র।

ভ্রাম্যমাণ আদালত ও পুলিশসূত্রে জানা গেছে, গাংনী ডিগ্রি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী চৌগাছা গ্রামের মহিবুল ইসলামের মেয়েকে গতকাল বেলা ১০টার দিকে কলেজ ক্যাম্পাসে উত্ত্যক্ত করে। এক পর্যায়ে তাকে চড় মারে রিকো। খবর পেয়ে ছাত্রীর পিতা মহিবুল ইসলাম ও চাচাতো ভাই তানভীর হোসেন কলেজ ক্যাম্পাসে গিয়ে প্রতিবাদ করলে রিকো ও তার সহযোগীরা তাদের মারধর করে। এক পর্যায়ে তানভিরকে (২২) ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়। তানভিরকে উদ্ধার করে আশঙ্কাজনক অবস্থায় প্রথমে গাংনী থেকে কুষ্টিয়া এবং পরে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে বলে পারিবারিকসূত্রে জানা গেছে।

এদিকে ওই ঘটনার পর গাংনী থানা পুলিশ ডিগ্রি কলেজ এলাকা থেকে রিকোকে গ্রেফতার করে। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুস সালাম ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করে তাকে ১ বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করেন। দণ্ডবিধির ৫০৯ ধারায় এ আদেশ দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুস সালাম। আদালতের আদেশে গতকালই তাকে মেহেরপুর জেলা কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন গাংনী থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ফারুকুল ইসলাম।

এদিকে তানভিরকে রাজশাহী নেয়ার পথে বার বার মৃত্যুর খবর আসতে থাকে। ধারালো অস্ত্রের কোপে ঘাড়ে গুরুতরভাবে জখম হওয়ায় রক্তক্ষরণ বন্ধ হচ্ছে না। তার সুস্থতার জন্য সকলের কাছে দোয়া কামনা করেছেন পরিবারের সদস্যরা। ঘটনার পর থেকেই বিভিন্ন মহল থেকে নিন্দার ঝড় ওঠে। কলেজ ক্যাম্পাসে এ নিন্দনীয় ঘটনার তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ছাত্রছাত্রীরা। ঘটনার সময় পুলিশের একটি দল কলেজ ক্যাম্পাসে উপস্থিত হলেও তাদের সামনেই এ ঘটনা কেন ঘটলো তা জানিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন গাংনী ডিগ্রি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মনিরুল ইসলাম। হামলার ঘটনায় গতকাল পর্যন্ত কোনো মামলা দায়ের হয়নি বলে জানিয়েছেন গাংনী থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাছুদুল আলম।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here