খালেদার বক্তব্য পশ্চাদমুখি : সৈয়দ আশরাফ

স্টাফ রিপোর্টার: আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের রূপরেখা নিয়ে খালেদা জিয়া বক্তব্য দিয়েছেন পশ্চাদমুখি, আগামীর কোনো ইঙ্গিত নেই। গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সহকারী (গণমাধ্যম) মাহবুবুল হক শাকিল গণমাধ্যমে আশরাফের পক্ষে তাত্ক্ষণিক প্রতিক্রিয়ার একথা জানান। সৈয়দ আশরাফের পক্ষে শাকিল বলেন, জাতির উদ্দেশে দেয়া বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী গণতন্ত্রকে সুসংহত করতে সবাইকে নিয়ে সামনে এগিয়ে যাওয়ার কথা বলেছেন। দুঃখজনক হলেও সত্য, আজকের বক্তৃতায় প্রমাণিত হয়েছে বিরোধীদলীয় নেত্রী দেশকে পেছনে ফেলে দিতে চান। তার এ বক্তব্যে ব্যক্তিগত বিদ্বেষের প্রতিফলন ঘটেছে। খালেদা জিয়ার বক্তব্য পশ্চাদমুখি, আগামীর কোনো ইঙ্গিত নেই। তিনি বলেন, জিয়াউর রহমান অবৈধ ও অসাংবিধানিকভাবে ক্ষমতা দখল করেছিলেন। তাই বিএনপি নেত্রীর অসাংবিধানিক সরকারপ্রীতি নতুন কিছু নয়। শাকিল বলেন, আগামীকাল কিংবা পরশু সৈয়দ আশরাফ আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে খালেদা জিয়ার নির্বাচনকালীন বিকল্প সরকারের প্রস্তাবের বিষয়ে আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানাবেন।

এদিকে খালেদা জিয়ার প্রস্তাব গ্রহণযোগ্য নয় বলে জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ। তিনি বলেন, তবে প্রস্তাব নিয়ে আলোচনার সুযোগ রয়েছে। সোমবার বিকেলে খালেদা জিয়ার সংবাদ সম্মেলনের পর রাজধানীর কারওয়ান বাজারের টিসিবি ভবনে নিজ কার্যালয়ে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় তিনি এ কথা বলেন।

হানিফ বলেন, নির্বাচনকালীন সরকার নিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন ও বিরোধীদলীয় নেতা বেগম খালেদা জিয়া যে প্রস্তাব দিয়েছেন তাতে নতুন কিছু নেই। তাই এ প্রস্তাব গ্রহণযোগ্য নয়। হানিফ বলেন, ১৯৯৬ সালে নির্বাচনে সময় যে তত্ত্বাবধায়ক সরকার ছিলো, বিএনপির কথামতো তারা নিরপেক্ষ ছিলো না। কারণ তখন পরাজয়ের পরে বিএনপি সেই তত্ত্বাবধায়ক সরকার নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলো। তাহলে এখন তাদের নিয়ে তত্ত্বাবধায়ক সরকার গঠন করে কিভাবে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব?

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *