কালীগঞ্জে এইসএসসি পরীক্ষায় একই সাথে মা-ছেলের অংশগ্রহণ :মা পাস ছেলে ফেল

 

 

শাহনেওয়াজ খান সুমন: ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে একই সাথে এইচএসসি পরীক্ষায় মা-ছেলে অংশগ্রহণ করে মা জিপিএ ৩.২০ পেয়ে উর্ত্তীণ হলেও ফেল করেছে ছেলে। কালীগঞ্জ পৌরসভার সাবেক মহিলা কাউন্সিলর জোবায়দা খানম ও তার ছেলে ইমরান খান চলতি বছরে যশোর বোর্ডের অধীন পরীক্ষায় অংশ নেয়।

জানা গেছে, বর্তমানে গৃহিনী কালীগঞ্জের মধুগঞ্জ ঢাকালে পাড়ার বাসিন্দা ফকরুদ্দিন খানের স্ত্রী জোবায়াদা খানম ও তার ছেলে ইমরান হোসেন চলতি বছর যশোর শিক্ষাবোর্ডের অধীন এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয় শহীদ নুর আলী কলেজ থেকে। কিন্তু পরীক্ষার ফলাফলে মা ৩.২০ পেয়ে উত্তির্ণ হলেও ছেলে ইমরান ফেল করেছে।

জোবায়াদা খানম জানান, মাধ্যমিক পাস করার আগেই পারিবারিক সিদ্ধান্তে বিয়ে হয়ে যাওয়ায় পড়াশোনা তেমন এগোয়নি। ২ মেয়ে ও ২ ছেলের জননী জোবায়দা খানমের বয়স ৫০ বছর। এই বয়সে তার পড়াশোনার আগ্রহ জাগে। উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন এসএসসি পাস করার পর এবার তিনি এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন। জোবায়াদা জানান, তিনি এই বয়সে পরীক্ষা দিয়ে পাস করেছেন কিন্তু মন ভালো নেই। ছেলের সাথে পরীক্ষা দিয়ে ছেলে ফেল করায় তার মন খুবই খারাপ। তিনি জানান, এবার অনার্সে ভর্তি হবেন। স্বামী ফকরুদ্দীন খান জানান, তার স্ত্রী সংসার জীবনে এসে লেখাপড়ার জন্য আফসোস করতেন। ফলে শেষ বয়সে হলেও তার স্ত্রীর মনের আশা পূরণ করার জন্য সহযোগিতা করেছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *