কার্পাসডাঙ্গার লেদব্যবসায়ী সামাদ হত্যার ৩ মাস অতিবাহিত হলেও হত্যার কোনো রহস্য উন্মোচিত হয়নি

 

 

ভ্রাম্যমাণ প্রতিনিধি: দামুড়হুদার কার্পাসডাঙ্গা বাজারের লেদব্যবসায়ী সামাদ হত্যার ৩ মাস পেরিয়ে গেলেও উন্মোচন হয়নি হত্যা রহস্য। হত্যাকাণ্ডের মূল রহস্য উন্মোচন না হওয়ায় তার পরিবার ও ব্যবসায়ীমহল হতাশ।

এবিষয়ে লেদব্যবসায়ী সামাদের বড় ভাই আব্দুল হাই বাদী হয়ে দামুড়হুদা মডেল থানায় একটা হত্যামামলা দায়ের করেছেন বলে জানাগেছে। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, গত ৬ মে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলার কুড়–লগাছি ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামের মৃত ওলি হোসেনের ছেলে আব্দুস সামাদ উপজেলার গোবিন্দহুদার মঙ্গলসাধুর আশ্রম থেকে ফেরার পথে তিনি খুন হন। পরদিন গোবিন্দহুদার ঈদগা সংলগ্ন ছটাঙ্গার মাঠ নামক স্থান থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

স্থানীয়সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলসাধুর বিশ্ব শান্তি আশ্রমের গাঁজার আখড়া থেকে ফেরার সময় দুবৃর্ত্তদের কবলে পড়ে নিহত হন। ৩ মাস অতিবাহিত হওয়ার পরও হত্যা রহস্য উন্মোচন না হওয়ায় পরিবার ও ব্যবসায়ী মহলের মধ্যে হতাশা বিরাজ করছে। এবিষয়ে দামুড়হুদা মডেল থানার মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এস.আই জামাল উদ্দিন জানান, এ হত্যাকাণ্ডের মূল রহস্য এখনো জানা যায়নি।

Leave a comment

Your email address will not be published.