ওবামাই আইএসের প্রতিষ্ঠাতা আর হিলারি সহপ্রতিষ্ঠাতা : ট্রাম্প

 

মাথাভাঙ্গা মনিটর: এবার কোনো জড়তা নয়, উচ্চকণ্ঠে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, ‘আইএস প্রতিষ্ঠা করেছেন বারাক হুসেইন ওবামাই।’ ফ্লোরিডা রাজ্যের ফোর্ট লৌডারডেলের বাইরে এক সমাবেশে বক্তব্য দেয়ার সময় জঙ্গিগোষ্ঠী ইসলামিক স্টেটের (আইএস)  প্রতিষ্ঠাতা হিসেবে অন্তত তিনবার প্রেসিডেন্ট ওবামার নাম উল্লেখ করেন ট্রাম্প।

আইএস এবং ওবামার উদ্দেশে ট্রাম্প বলেন, ‘অনেক ক্ষেত্রে তারা তাকে সম্মান করে। তিনিই আইএসের প্রতিষ্ঠাতা।’ এর আগের এক বক্তব্যে তিনি হিলারির উদ্দেশে বলেন, ‘আসলে হিলারি হলেন এ গ্রুপের (আইএস) সহ-প্রতিষ্ঠাতা।’ এবার নিয়ে কমপক্ষে তিনবার আইএস প্রতিষ্ঠার জন্য ওবামা এবং হিলারিকে দায়ী করলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে বরাবরের মতোই বক্তব্যের পক্ষে কোনো তথ্য-প্রমাণ হাজির করেননি তিনি। মধ্যপ্রাচ্যে অশান্তি সৃষ্টির জন্য ওবামা ও তার প্রাক্তন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারিকে অনেক দিন ধরে অভিযুক্ত করে আসছেন ট্রাম্প। ইরাকে ক্ষমতার শূন্যতা তৈরি করে দেয়ায় সেই সুযোগে উত্থান হয়েছে আইএসের বলে মনে করেন ট্রাম্প।

ইরাক ইস্যুতে ওবামাকে কঠোর ভাষায় সমালোচনা করে ট্রাম্প ঘোষণা দেন, তিনি প্রেসিডেন্ট হলে ইরাক থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাদের প্রত্যাহার করে নেবেন। ট্রাম্পের বক্তব্যের বিষয়ে গণমাধ্যমের পক্ষ থেকে হোয়াইট হাউসের প্রতিক্রিয়া জানতে চাওয়া হলে, তারা কিছু বলতে অস্বীকৃতি জানায়।

সহ্যের সীমা ছাড়াচ্ছেন: এদিকে, হিলারি ক্লিনটন বলেছেন, রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প সহিংসতাকে উস্কে দিচ্ছেন। তিনি সব ব্যাপারে সহ্যের সীমা ছাড়িয়ে যাচ্ছেন। আইওয়ায় এক সমাবেশে হিলারি ট্রাম্পকে সতর্ক করে বলেন, মুখের কথা একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। বিশেষ করে কেউ যদি প্রেসিডেন্ট হতে চায় তার জন্যে আরো বেশি। বেফাঁস কথার পরিণতি মারাত্মক হতে পারে। তিনি বলেন, প্রেসিডেন্ট হওয়ার মতো মেজাজ ট্রাম্পের নেই।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *