ই-ভিসার ভোগান্তি চরমে বাতিল হচ্ছে হজ ফ্লাইট

 

স্টাফ রিপোর্টার: এ বছর থেকে সৌদি আরব কর্তৃক প্রবর্তিত ই-ভিসা নিয়ে জটিলতা ও ভোগান্তি বেড়েই চলেছে। হজ যাত্রীরা প্রতিদিনই শিকার হচ্ছেন চরম বিড়ম্বনার। গতকাল রোববার এই ভিসা জটিলতায় বাংলাদেশ বিমানের একটি হজ ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে। এর আগে শুক্রবার বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও সৌদি এয়ারলাইন্সের দুটি হজ ফ্লাইট কম যাত্রী নিয়েই জেদ্দা গেছে। এর মধ্যে ৭৮ হজ যাত্রী রেখেই চলে যায় সৌদি এয়ারলাইন্স। গত কয়েকদিন প্রতিটি হজ ফ্লাইটই কম যাত্রী নিয়ে ঢাকা ছাড়ছে। সংশ্লিষ্টরা বলছেন, নির্ধারিত সময়ে ই-ভিসা না হওয়ার কারণে ভবিষ্যতে এয়ারলাইন্সগুলোর ক্যাপাসিটি লস আরো বাড়তে পারে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আগে পাসপোর্টে স্টিকার লাগানো হতো। যা ঢাকাস্থ সৌদি দূতাবাস ইস্যু করতো। কিন্তু এবার ভিসা অনলাইনে করা হয়েছে। পাসপোর্টে কোনো ভিসা থাকছে না। হজে যাওয়ার সময় পাসপোর্টের সঙ্গে আলাদা কাগজে ই-ভিসার প্রিন্ট করা কপি সঙ্গে রাখার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। সাদা কাগজে প্রিন্ট করা এই ই-ভিসা দেখে অনলাইনে চেক করে বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশন পুলিশ পাস দিচ্ছে। অনলাইনেই হচ্ছে সবকিছু। কিন্তু সার্ভারের সিস্টেম জটিলতা দেখা দিচ্ছে ক্রমাগত। অনলাইনে ই-ভিসার প্রিন্ট নেয়ার সমস্যা হচ্ছে। সার্ভার জটিলতা দেখা দিচ্ছে। সকল প্রক্রিয়া সম্পন্ন করার পর প্রিন্ট করতে গিয়ে অনেকের ভিসা প্রিন্ট হচ্ছে না। এ সমস্যা জটিল হওয়ায় সংশ্লিষ্টদের মধ্যে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে। সমস্যার দ্রুত সমাধান না হলে অনেকেই নির্দিষ্ট সময়ে সৌদি আরবে যেতে পারবেন না। যদিও ধর্ম মন্ত্রণালয় বলছে, উদ্ভূত সমস্যা সহসাই কেটে যাবে। মন্ত্রণালয়ের এমন আশ্বাসেও উদ্বেগ কাটছে না ভুক্তভোগী হজ যাত্রীদের। হজ অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (হাব) মহাসচিব  শাহাদাত হোসেন তসলিম বলেন, অনলাইনে সমস্যা হচ্ছে। সিস্টেমের সমস্যা। এটা সারাবিশ্বে হচ্ছে। এখানে কারও কিছু করার নেই।

Leave a comment

Your email address will not be published.