ইরানে মুতা বিয়ের জন্য সরকারি বরাদ্দ

মাথাভাঙ্গা মনিটর: সম্প্রতি ইরান স্বল্পস্থায়ী বিয়ের ছদ্মবেশে সরকারিভাবে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ফান্ড বরাদ্দ করছে। এ ব্যবস্থায় নির্দিষ্ট লোকালয়ে একদিনের জন্য বিয়ের অনুমতি দিয়েছে ইরান সরকার। এ ব্যবস্থা অনুযায়ী যেকোনো ইরানী কিংবা বিদেশি নির্দিষ্ট এলাকায় গিয়ে ওই মেয়ের সম্মতিতে একদিনের জন্য বিয়ে করে তার সাথে সেক্স করতে পারবে। বিয়ে ছাড়া সেক্স করলে ইরানে ১০০ বেত্রাঘাত থেকে শুরু করে মৃত্যুদণ্ড দেয়ার বিধান আছে। শিয়া ইসলাম অনুযায়ী এ ধরনের বিয়েকে মুতা বিয়ে বলে। ইসলামে মুতা বিয়ে নিষিদ্ধ হলেও শিয়া মতাবলম্বীদের এটি এখনো প্রচলিত আছে। সরকার কর্তৃক এ স্বীকৃতির পর এখন যে কেউ হালাল উপায়ে নারী-সম্ভোগ করতে পারবে মাত্র ২০ থেকে ৫০ ডলার এর বিনিময়ে। কুমারী, সুন্দরি এ সব ভেদে ওই যৌন-সম্ভোগ এর মূল্যমান বিভিন্ন হতে পারে। যৌন-সম্ভোগ শেষে আবার আরও একটি কাগজে তালাক সই করে বাড়ি চলে যেতে কোনো অসুবিধা নেই। ইরানে এমনটা অনেকদিন ধরেই চলে আসছিলো। উদারপন্থি বলে পরিচিত প্রেসিডেন্ট রুহানি দায়িত্ব গ্রহণের পর প্রথম রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দেয়া হলো।

Leave a comment

Your email address will not be published.