আলমডাঙ্গা পৌরসভার ১ নং প্যানেল মেয়র নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা চরমে

 

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গা পৌরসভার প্যানেল মেয়র নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা দেখা দিয়েছে। ২ এবং ৩ নং প্যানেল মেয়র একরকম ঠিকঠাক করা গেলেও ১ নং নিয়ে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। মেয়র হাসান কাদির গনু মিয়া কাউন্সিলরদের সাথে দফায় দফায়  বৈঠক করলেও বিষয়টি এখনও সমাধান হয়নি। পৌরসভার সচিব উপস্থিত না থাকায় গতকাল রোববারও কোনো সিদ্ধান্ত ছাড়া আলোচনা শেষ হয়েছে।

আলমডাঙ্গা পৌরসভার একাধিক সূত্র থেকে জানা গেছে, জহুরুল ইসলাম স্বপনকে ২ নং প্যানেল মেয়র ও সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর সামসাদ রানুকে ৩ নং প্যানেল মেয়র বেশ কয়েক দিন পূর্বে নির্ধারণ করা হয়েছে। কিন্তু ১ নং প্যানেল চেয়ারম্যান নির্বাচন করতে গিয়ে মেয়র হাসান কাদির গনু মিয়াকে রীতিমতো গলধঘর্ম হতে হচ্ছে। সদর উদ্দিন ভোলা ও যুবলীগ নেতা মতিয়ার রহমান ফারুক ১ নং প্যানেল চেয়ারম্যান হতে পরস্পর প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেমেছেন। এ জটলতা নিয়ে ইতোমধ্যেই কয়েকবার বৈঠকও হয়েছে। তারপরও সমস্যার সুরাহা হয়নি। গতকাল রোববার নির্ধারিত দিনে দু’পক্ষই সমর্থক নিয়ে পৌরসভা এলাকায় মহড়া দিয়েছেন বলে জানা গেছে। এ সময় পরিস্থিতি মোকাবেলায় থানা পুলিশের একটি দল পৌরসভা চত্বরে শক্ত অবস্থান নেয়। কিন্তু পৌরসভার সচিব উপস্থিত না থাকায় গতকালও এ জটিলতার নিরসন সম্ভব হয়নি বলে জানা গেছে। ১ নং প্যানেল মেয়র দাবিদার মতিয়ার রহমান ফারুক গোপন ভোটের মাধ্যমে ১ নং প্যানেল মেয়র নির্বাচনের দাবি জানিয়েছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *