আলমডাঙ্গা উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রকে ১০ শয্যার হাসপাতালে রূপান্তরের দাবিতে মানববন্ধন

 

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গা উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রকে ১০ বেডের হাসপাতালে রূপান্তরের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। গতকাল রোববার বিকেলে আলমডাঙ্গা হাইরোডে আলমডাঙ্গাবাসীর পক্ষে ওই মানববন্ধন করে আলমডাঙ্গা নাগরিক অধিকার রক্ষা কমিটি। নাগরিক অধিকার রক্ষা কমিটির আহ্বায়ক আলমডাঙ্গা কলেজিয়েট স্কুলের উপাধ্যক্ষ শামীম রেজার উপস্থাপনায় বক্তব্য রাখেন সাবেক উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন, বিআরডিবি চেয়ারম্যান মুহিদুল ইসলাম মুহিত, নাগরিক অধিকার রক্ষা কমিটির সাধারণ  সম্পাদক এএইচআই মহাবুল ইসলাম, যুগ্ম আহ্বায়ক অহিদুল ইসলাম আজাদ, চুয়াডাঙ্গা জেলা ডিপ্লোমা মেডিকেল অ্যাসেসিয়েশনের আহ্বায়ক ডা. নাজমুল হক, অ্যাড. নাসির উদ্দিন মঞ্জু, প্রেসক্লাব সভাপতি খ. হামিদুল ইসলাম আজম, খাসকররা কলেজের প্রভাষক গোলাম রসূল, এম, সবেদ আলী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সিদ্দিকুর রহমান, ওসমানপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল গণি, সাহিত্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক আ.ফ.ম. সিরাজ সামজী, কবি বুলবুল খান, ডা. নাজমুল, মুকুল হোসেন, টিটার আহমেদ খান, বিপুল আহমেদ, মজিবুর রহমান, আসমাউল হুসনা লাকি, ফারিয়ার আলমডাঙ্গার সভাপতি তোহিদুল ইসলাম, সম্পাদক খবির উদ্দিন মানিক, ফারিয়ার সদস্য মেডিকেল রিপ্রেজিনটিভ মনির হোসেন, হাফিজুর রহমান বাবু, আ. হালিম, রফিকুল ইসলাম, মাহাবুব,আবু দাউদ, নহর আলী, মহির উদ্দিন, শাহীন সাজু, মানিক হোসেন, সুমন রেজা প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, আলমডাঙ্গা উপ-স্বাস্থকেন্দ্রে যে স্থাপনা আছে তাতে অল্প কিছু টাকা ব্যয় করলে এবং জনবল কাঠামো নিয়োগ দিলে উপস্বাস্থ্যকেন্দ্রে জরুরি বিভাগসহ ১০ বেডের হাসপাতাল চালু করা সম্ভব। আলমডাঙ্গায় কোনো দুর্ঘটনা ঘটলে এখান থেকে কুষ্টিয়া অথবা চুয়াডাঙ্গা অথবা হারদী হাসপাতালে ভর্তি করতে যাওয়ার পথেই অনেকে মারা যান। দেরিতে পৌঁছুনোর কারণে কারো বড় ধরনের ক্ষতি হয়ে যায়। আলমডাঙ্গাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি আলমডাঙ্গা উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রটিকে ১০ বেডের হাসপাতালে রূপান্তর করা। এ বিষয়ে এলাকাবাসী ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করা হয়েছে।

 

Leave a comment

Your email address will not be published.