আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ে বন্ধ

 

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের হস্তক্ষেপে বাল্যবিয়ের অভিশাপ থেকে রক্ষা পেলো রায়সা গ্রামের ৬ষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ুয়া অন্তরা খাতুন।

জানা গেছে, আলমডাঙ্গা উপজেলার রায়সা গ্রামের বড়দাড়িপাড়ার ছমির উদ্দীনের মেয়ে অন্তরা খাতুন (১৩) ৬ষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। সম্প্রতি তার বিয়ে ঠিক হয় ঝিনাইদহ জেলার হরিণাকুণ্ডু উপজেলার পারদখলপুর গ্রামের শাহাদত মোল্লার ছেলে কামালের (২৫) সাথে। গতকাল ছিলো বিয়ের দিন। যথারীতি বরযাত্রীসহ বর গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে কনের পিত্রালয় পৌঁছে। বিয়ে পড়াতে ছুটে যান জামজামি ইউনিয়নের দায়িত্বপ্রাপ্ত কাজি চরপাড়া গ্রামের ওয়াজেদ আলী। বরযাত্রীদের খাওয়া-দাওয়াও সম্পন্ন। সে সময়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশরাফুল আলম বাল্যবিয়ে পড়ানোর সংবাদ পান। তিনি আলমডাঙ্গা থানা পুলিশকে দ্রুত ওই বাল্যবিয়ে বন্ধের নির্দেশ দেন। বিয়ে পড়ানোর ঠিক পূর্ব মুহূর্তে খাসকররা পুলিশ ফাঁড়ির এএসআই এবি রবিউল ইসলাম ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। বন্ধ করেন বাল্যবিয়ে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *