আন্দুলবাড়িয়া ইউপি নির্বাচনে ভোট কারচুরি অভিযোগ তুলে পুনঃগণনার দাবিতে আপিল

আন্দুলবাড়িয়া প্রতিনিধি: জীবননগরের আন্দুলবাড়িয়া ইউপি নির্বাচনে ভোট কারচুপির অভিযোগ তুলে ভোট পুনঃগণনার দাবিতে আপিল দায়ের করা হয়েছে। গত সোমবার যুগ্ম জেলা জজ ১ম আদালতের বিজ্ঞ বিচারক মুহাম্মদ আব্দুর রহিম আপিল গ্রহণ করে নি¤œ আদালতের দেয়া রায় কার্যক্রম স্থগিত ও নথি তলবের আদেশ দিয়েছেন।
মামলার বাদীপক্ষ এ তথ্য জানিয়ে বলেছেন, চুয়াডাঙ্গা সদর সহকারী জজ খাইরুল ইসলাম অভিযোগটি দীর্ঘ শুনানি শেষে খারিজ করে দেয়ার পর মামলার বাদী মির্জা হাকিবুর রহমান লিটন যুগ্ম জেলা জজ আদালতে আপিল দায়ের করেন। বিজ্ঞ বিচারক আপিল গ্রহণ করেছেন।
জানা গেছে, পঞ্চম দফায় গত ২৮ মে জীবননগর উপজেলার আন্দুলবাড়িয়া ইউপি নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত পরাজিত চেয়ারম্যান প্রার্থী মীর্জা হাকিবুর রহমান লিটন বাদী হয়ে বিজয়ী চেয়ারম্যান শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তারসহ ২১৭ জনকে বিবাদী করে ২০১৬ সালের ১৪ আগস্ট ভোট পুনঃগণনার অভিযোগ তুলে চুয়াডাঙ্গা সদর সহকারী জজ খাইরুল ইসলামের আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালত অভিযোগটি আমলে নিয়ে শুনানির দিন ধার্য করে বিবাদীগণের প্রতি সমন জারির আদেশ দেন। বিজ্ঞ আদালত প্রায় ৯ মাস উভয়পক্ষের সাক্ষ্যগ্রহণ, শুনানি ও যুক্তিতর্ক শেষে বিজ্ঞ বিচারক বাদীপক্ষের আনিত অভিযোটি খারিজের আদেশ দেন। এ আদেশ দেয়ায় বাদী যুগ্ম জেলা জজ ১ম আদালতে সুবিচার প্রার্থনা করে আপিল করেন। বাদীপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন সিনিয়ার আইনজীবী অ্যাড. শাহ আলম।
প্রসঙ্গত, আন্দুলবাড়িয়া ইউপি নির্বাচনে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তার আনারস প্রতীক নিয়ে ৪ হাজার ৭৬৯ ভোট পেয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী মীর্জা হাকিবুর রহমান লিটন নৌকা প্রতীক নিয়ে ৪ হাজার ৬৮১ ভোট পান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *