আন্তর্জাতিক বাজারে বেড়েছে সোনার দাম

মাথাভাঙ্গা মনিটর: আন্তর্জাতিক স্পট মার্কেটে সোনার দাম আউন্সপ্রতি এক হাজার ৪০০ ডলার ছাড়াল। এশিয়ায় চাহিদা বাড়ায় রোববার মূল্যবান ধাতুটির দাম ১১ সপ্তাহের মধ্যে সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছে। সিঙ্গাপুরের স্পট মার্কেটে রোববার প্রতি আউন্স সোনা এক হাজার ৪০০ ডলারে লেনদেন হয়, যা গত ৭ জুনের পর সর্বোচ্চ। এরপর নিউইয়র্কের স্থানীয় সময় ৩টা ৫৫ মিনিটে তাৎক্ষণিক সরবরাহের জন্য প্রতি আউন্স সোনার দাম দেড় শতাংশ বেড়ে উন্নীত হয় এক হাজার ৩৯৬ ডলার ৩০ সেন্টে। এছাড়া নিউইয়র্কের কোমেক্সে আগামী ডিসেম্বরে সরবরাহের জন্য প্রতি আউন্স সোনার দাম দাঁড়ায় এক হাজার ৩৯৯ ডলার ৯০ সেন্টে। গত সপ্তাহে সোনার দাম বেড়েছে ১ দশমিক ৮ শতাংশ। এশিয়ায় গহনা, বার ও কয়েনের চাহিদা বেড়ে যাওয়াই সোনার বাজারকে চাঙ্গা হতে সহায়তা করছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। ওয়ার্ল্ড গোল্ড কাউন্সিলের (ডব্লিউজিসি) তথ্য অনুযায়ী, এ বছর বিশ্বে সোনার দু শীর্ষ ভোক্তা ভারত ও চীনে চাহিদা এক হাজার টনে পৌঁছাবে। এপ্রিলে ব্যাপক দরপতনের মধ্য দিয়ে চলতি বছর সোনার দাম কমেছে ১৭ শতাংশ। যুক্তরাষ্ট্রের অর্থনীতিতে চাঙ্গাভাব দেখা দেয়ায় ডলারের মান বাড়ছে। ফলে অনেক বিনিয়োগকারীই সোনা বিনিয়োগে আস্থা হারাচ্ছেন। এতে চাপের মুখে পড়ছে এর বাজার। এদিকে গত মাসে যুক্তরাষ্ট্রে নতুন বাড়ি বিক্রি কমেছে ১৩ শতাংশেরও বেশি। ফলে কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভ (ফেড) প্রণোদনা চালু রাখতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। আন্তর্জাতিক বাজারের প্রভাবে ভারতেও বেড়েছে সোনার দাম। এদিকে আগস্ট মাসে আন্তর্জাতিক মার্কেটে সোনার দাম বৃদ্ধির অজুহাতে বাংলাদেশে জুয়েলার্স সমিতি দু’দফা সোনার দাম বাড়ায়। এখন আরেক দফা দাম বাড়ানোর পাঁয়তারা চলছে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র জানিয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published.