আজ দৌলতপুর মুক্ত দিবস

 

দৌলতপুর প্রতিনিধি: আজ ৮ ডিসেম্বর কুষ্টিয়ার দৌলতপুর মুক্ত দিবস। তৎকালীন দৌলতপুর থানায় পাক হানাদারদের সাথে সবচেয়ে বড় যুদ্ধ সংগঠিত হয় ১৩ নভেম্বর আদবাড়িয়া ইউনিয়নের ব্যাঙগাড়ী মাঠে। সেখানে ৪ মুক্তিযোদ্ধা এবং দুজন মিত্রবাহিনীর সদস্য শহীদ হন। এ যুদ্ধে প্রায় ৩ শতাধিক পাকসেনা নিহত হয়। এরপর ২৯ নভেম্বর পিয়ারপুর ইউনিয়নের শেরপুর মাঠে পাকহানাদারদের সাথে আরেকটি বড় যুদ্ধে বীর মুক্তিযোদ্ধা হাবিবুর রহমান হাবিব শহীদ হন। এ যুদ্ধে প্রায় শতাধিক  পাকসেনা ও প্রায় দু শতাধিক আলবদর ও রাজাকার নিহত হওয়ার পর পাকসেনা ও রাজাকাররা মুক্তিযোদ্ধাদের তোপের মুখে দৌলতপুর থানার অভ্যন্তরে আশ্রয় নেয় এবং ৭ ডিসেম্বর রাতের অন্ধকারে পাকসেনারা পালিয়ে কুষ্টিয়ার শহরতলী জগতি বটতৈল এলাকায় আশ্রয় নেয়।

আজকের এদিনে বীর মুক্তিযোদ্ধারা দৌলতপুরে স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা আনুষ্ঠানিকভাবে উত্তোলনের মাধ্যমে দৌলতপুরকে শত্রুমুক্ত ঘোষণা করে। দিনটি উপলক্ষে দৌলতপুর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ দিনব্যাপি বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করবে।

Leave a comment

Your email address will not be published.