অবৈধভাবে চিনি বিক্রির সময় কেরু কোম্পানির টিম অবরুদ্ধ : মুচলেখা দিয়ে পার পেলেন চিনি বিক্রি টিমের সদস্যরা

 

স্টাফ রিপোর্টার: অবৈধভাবে চিনি বিক্রির সময় কেরু অ্যান্ড কোম্পানির একটি টিম অবরুদ্ধ হয়ে পড়লো চুয়াডাঙ্গায়। শেষমেশ মুচলেখা দিয়ে পার পেলেন চিনি বিক্রি টিমের সদস্যরা। কোম্পানির চিনি খুচরা বিক্রির সময় বিধিভঙ্গ করে ওই টিমের লোকজন অবৈধভাবে কয়েকজন দোকানির কাছে পাইকারি বিক্রির সময় অন্যান্য দোকানিরা বিক্ষুব্ধ হয়ে পড়েন। এ সময় তারা সঙ্গবদ্ধ হয়ে চিনি বিক্রি টিমকে অবরুদ্ধ করে রাখেন। গতকাল সেমাবার বেলা দেড়টার দিকে চুয়াডাঙ্গা জেলা শহরের বড়বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, রমজানে চিনির বাজারকে স্থিতিশীল রাখতে দর্শনা কেরু অ্যান্ড কোম্পানি কর্তৃপক্ষ জেলার সাধারণ মানুষের মধ্যে ১ কেজির প্যাকেটজাত করে খুচরা বিক্রির সিদ্ধান্ত নেয়। সেই অনুযায়ী কোম্পানির একটি টিম গতকাল সেমাবার বেলা দেড়টার দিকে গাড়িতে করছিলো। কোম্পানির বিধিনুযায়ী একজনের কাছে সর্বোচ্চ ৪ প্যাকেট চিনি বিক্রি করার কথা কিন্তু তারা কোম্পানির বিধিভঙ্গ করে বাড়তি সুবিধা নিয়ে কতিপয় দোকানির কাছে পাইকারি চিনি বিক্রি করছিলো বলে অভিযোগ রয়েছে। এ সময় ক্ষুব্ধ দোকানীরা কেরু অ্যান্ড কোম্পানির ওই টিমকে ৫০ কেজি চিনির ৪টি বস্তাসহ অবরুদ্ধ করে। একই সময় এনএসআই’র একটি টিমও আরো ২ বস্তা চিনি আটক করে। চুয়াডাঙ্গা জেলা মার্কেটিং অফিসার শাহিদুল ইসলাম জানান আমি খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে ৫০ কেজি চিনির ৬টি বস্তাসহ কোম্পানির মহাব্যবস্থাপক (প্রশাসন) আকরাম হোসেন, উপমহাব্যবস্থাপক (যন্ত্র কৌশল) মুন্সী আব্দুল্লাহ আল আহাদ, গাড়ীর ড্রাইভার খেদের ও সিকিউরিটিগার্ড মনুকে উদ্ধার করে পুলিশ হেফাজতে দিই। পরে জেলা প্রশাসনকে খবর দেয়া হলে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মুনিবুর রহমান ঘটনাস্থালে উপস্থিত নিয়ে ছেড়ে দেন।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *