অন্তঃসত্ত্বার পেটে লাথি ও তার শ্বাশুড়িকে পিটিয়ে জখম করার অভিযোগে কৃষ্ণপুরের আনসার আলী মাস্টারসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে মামলা

আলমডাঙ্গা ব্যুরো: অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূর পেটে লাথি, শ্বাশুড়ি, স্বামী ও দেবরকে পিটিয়ে রক্তাক্ত জখমের অভিযোগে আলমডাঙ্গার কৃষ্ণপুরের আনসার আলীসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।
লিখিত এজাহারসূত্রে জানা গেছে, কৃষ্ণপুরের মৃত মেকবার আলীর ছেলে আনসার আলীদের সাথে একই গ্রামের একরামুল ওরফে মতিয়ারের ছেলেদের বিভিন্ন বিষয়ে বিরোধ রয়েছে। গত শনিবার পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আনসার আলী, রবিউল ইসলামের ২ ছেলে কালাম ও কলম, মতির ছেলে মিনারুলসহ বেশ কয়েকজন হঠাৎ করে মতিয়ারের বাড়িতে গিয়ে চড়াও হয়। একরামুল ওরফে মতিয়ারের ছেলে রনি আহমেদ ও জনি আহমেদকে বেধড়ক পেটায়। সে সময় জনির ৯ মাসের অন্তঃসত্ত্বা স্ত্রী জামেলা খাতুন বাধা দিতে এলে তার পেটে লাথি মেরে মারাত্মক জখম করে। এমন মর্মান্তিক দৃশ্য দেখে বৃদ্ধ শ্বাশুড়ি সাহেদা বেগম ঠেকাতে ছুটে যান। সে সময় তাকে মারধর করে মারাত্মক জখম করে। এছাড়া ঘরের আসবাবপত্র ভেঙে ফেলা হয়। সে সময় প্রতিবেশীরা তাদেরকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। এ ঘটনায় একরামুল ওরফে মতিয়ারের ছেলে সুজন আলী বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *