অকালেই ঝরে গেলেন পলাশপাড়ার মিল্টন ইসলাম

 

 

স্টাফ রিপোর্টার: মিল্টন ইসলাম অকালেই ঝরে গেলেন। তিনি রাতে নিজ বাড়ি ঘুমিয়ে সকালে আর উঠলেন না। রাতে ঘুমের মাঝে কখন যে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন তা পরিবারের সদস্যরাও নিশ্চিত হতে পারেননি। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৩৫ বছর।

গতকাল রোববার সকাল ১০টার দিকে তাকে ঘুম থেকে ডাকতে গেলে সাড়া না পেয়ে পরিবারের সদস্যরা কান্নায় ভেঙে পড়েন। গতকালই বাদ আছর নামাজে জানাজা শেষে জান্নাতুল মওলা কবরস্থানে তার দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়।

মিল্টন ইসলাম চুয়াডাঙ্গা পলাশপাড়ার ভোলা মিয়ার একমাত্র ছেলে ছিলেন। এক সময় তিনি আলী হোসেন মার্কেটের দোতলায় ফেমাস ভিডিও এডিটিং ও কম্পিউটারের দোকান দেন। ২০০৩ সালে দিকে তিনি দৈনিক মাথাভাঙ্গার বিনোদন পাতা পরিচালনা করেন কিছুদিন। পরবর্তীতে তিনি ঢাকায় কর্মজীবন শুরু করেন। সেখান থেকে ফিরে বাড়িতেই ছিলেন। তিনি স্ত্রী ও ৯ বছর বয়সী একমাত্র মেয়ে তানহা ও পিতা-মাতাসহ বহু গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

আগামী বুধবার বাদ আছর তার পলাশপাড়াস্থ বাড়িতে মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়েছে। মরহুমের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনায় আয়োজিত মিলাদ মাহফিলে সকলকে শরিক হওয়ার জন্য পরিবারের পক্ষে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *