হারদীতে নিপ্পন-জোহা এডুকেশন কমপ্লেক্সের প্রতিষ্ঠাতা দানবীর মীর শামসুজ্জোহার ১১তম মৃত্যুবার্ষিকীতে এমপি ছেলুন দানবীর জোহা ছিলেন প্রাতঃস্মরণীয় ক্ষণজন্মা মহাপুরুষ

রহমান মুকুল/এম হাফিজ: নিপ্পন-জোহা এডুকেশন কমপ্লেক্সের প্রতিষ্ঠাতা দানবীর মীর শামসুজ্জোহার ১১তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলমডাঙ্গার হারদী এমএস জোহা অনার্স কলেজ চত্বরে গতকাল রোববার আলোচনাসভা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এমএস জোহা অনার্স কলেজ, এমএস জোহা কৃষি কলেজ, এমএস জোহা ফিসারিজ কলেজ ও এমএস জোহা বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজের আয়োজনে অনুষ্ঠিত ওই  আলোচনাসভা ও মিলাদ মাহফিলে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন। এ সময় তিনি বলেন, দানবীর এমএস জোহা ছিলেন প্রাতঃস্মরণীয় ব্যক্তিত্ব। তার কর্মজীবন ছিলো লন্ডন। তিনি খ্যাতি-অর্থ-যশ সবই পেয়েছিলেন। কিন্তু জন্মভূমিকে কোনোদিন ভুলতে পারেননি। জন্মভূমি অন্তপ্রাণ জোহা সাহেব এলাকাবাসীর জন্য যা করেছেন, অনেকের টাকা থাকলেও তা করতে পারেননি। এমন ক্ষণজন্মা মহাপুরুষ পৃথিবীতে যুগে যুগে জন্মায় না। এমন মানুষেরাই সমাজ নির্মাণ করেন। তিনি এতো বড় মাপের মানুষ যে তার নামের আগে যতো বিশেষণই যোগ করা হোক না কেন, তা দিয়ে তাকে পরিমাপ করা যাবে না। তার নিকট থেকে ধনবানদের অনেক কিছু শেখার আছে।

এমএস জোহা অনার্স কলেজের অধ্যক্ষ ওমর ফারুকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন কলেজের প্রতিষ্ঠাতা আজীবন সদস্য ইউপি চেয়ারম্যান নূরুল ইসলাম, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আশাদুল হক বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মুন্সি আলমগীর হান্নান, উপজেলা সভাপতি হাসান কাদির গনু, এমএস জোহা অনার্স কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ আবু তৈয়ব, ভাইস প্রিন্সিপাল নিয়ামত আলী, এমএস জোহা কৃষি কলেজের অধ্যক্ষ হামিদুল ইসলাম, মীর সামসুল ইসলাম পলিটেকনিক ইন্সটিটিউটের অধ্যক্ষ মনিরুজ্জামান, উপজেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ইয়াকুব আলী মাস্টার, মীর সামসুদ্দীন আহমেদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক আব্দুস সাত্তার খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম মন্টু।

সহকারী অধ্যক্ষ সালাউদ্দীনের উপস্থাপনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন নাজমুল কাউনাইন শিলু, বিআরডিবি চেয়ারম্যান মহিদুল ইসলাম মহিত, মহিবুল হক, কামরুল ইসলাম সদু, ওমর খৈয়াম, শহর আলী, প্রভাষক ইদ্রীস আলী, সহকারী অধ্যাপক সিরাজুল ইসলাম, রাশেদ পারভেজ, মজিবর রহমান প্রমুখ। সভাপূর্বে মিলাদ মাহফিলে মরহুম শামসুজ্জোহার আত্মার শান্তি কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন মাও. অছিম উদ্দীন।

অপরদিকে হারদী মীর সামসুদ্দিন বিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে এম এস জোহা সাহেবের আত্মার মাগফেরাত কামনায় মিলাদ মাহফিল ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। ওই সময় প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা আশিকুজ্জামান ওল্টু, ম্যানেজিং কমিটির সদস্যবৃন্দ, শিক্ষক কর্মচারী ও ছাত্রছাত্রীরা। সভাপতিত্ব করেন প্রধান শিক্ষক আনোয়ারুল ইসলাম সাগর।

উল্লেখ্য, আলমডাঙ্গার হারদী গ্রামের সন্তান এমএস জোহা ছিলেন আন্তর্জাতিক পরিমণ্ডলের একজন নামি চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট। তিনি ব্রিটেনের লন্ডন শহরের ৬৫ নিউ রোডে অবস্থিত বিশ্বনন্দিত জোহা অ্যান্ড কোম্পানি চার্টার্ড অ্যাকাউন্ট অডিট ফার্ম’র প্রতিষ্ঠাতা। নিজ গ্রামে তিনি এমএস জোহা অনার্স কলেজ, এমএস জোহা কৃষি কলেজ, এমএস জোহা ফিসারিজ কলেজ, পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট, ভোকেশনাল ইন্সটিটিউট, বিজনেস ম্যানেজমেন্ট কলেজ, নির্মাণাধীন মেডিকেল টেকনোলজি ইন্সটিটিউট ও তার পিতার নামে মীর সামসুদ্দীন আহমেদ মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেন। এছাড়াও তিনি জেলার বহু শিক্ষা ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানে ব্যাপক অনুদান দিয়েছেন। তিনি জটিল কিডনি রোগে আক্রান্ত হয়ে ২০০২ সালের ২২ ডিসেম্বর লন্ডনের নিজ বাসভবনে স্ট্রোক করে মৃত্যুবরণ করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *