রমজানের নিত্য প্রয়োজনীয় প্রায় প্রতিটি দ্রব্যসামগ্রীর দাম বৃদ্ধি

 

খাইরুজ্জামান সেতু/সাইফ জাহান: রমজানে বাজারে নিত্য সমগ্রীর দাম লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে শুরু করেছে। বাজার হয়ে উঠেছে অস্থিতিশীল। প্রশাসনের বাজার মনিটরিং টিমও বাজারের সাথে পেরে উঠছে না। রোজার মধ্যে বাজারে মনিটরিং টিম পরিদর্শন করলেও কোনো কাজ হচ্ছে না।

চুয়াডাঙ্গা বাজার সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা গেছে, রোজার আগে যে পেঁয়াজ ৩২ টাকা দরে বিক্রি হয়েছে। সেই পেঁয়াজ এখন ৪০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। রসুন রোজার আগে যে রসুন বিক্রি হয়েছে ৪০ টাকা দরে সেই রসূন বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকা দরে। ১৫ টাকার শসা বিক্রি হচ্ছে ডাবল দামে অর্থাত ৩০ টাকা দরে। ৪০টাকার করল্লা বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকা দরে। আর বেগুনের দাম তো আকাশ ছোয়া। ৩০ টাকার বেগুন ১০০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। যা রোজার আগের দামের তুলনায় তিন গুন বেশি। ২০ টাকার পটল বিক্রি হচ্ছে ৩০ টাকা দরে। কাঁচা ঝালের দামও ডাবল। ৩০ টাকার কাঁচা ঝাল ৬০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। ৩৫ টাকার কচু ৪০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। ৬০ টাকার টমেটো ৮০ টাকা। ডিমের হালি ছিলো রোজার আগে ২৬ থেকে ২৮ টাকা এখন বিক্রি হচ্ছে ৩০ থেকে ৩২ টাকা দরে। ৩৮ থেকে ৪০ টাকার মটরের ডাল বিক্রি হচ্ছে ৪৬ টাকা। ৩৫ টাকার খেসারির ডাল বিক্রি হচ্ছে ৪০ টাকা। ১০০ টাকার মসুরি ডাউল বিক্রি হচ্ছে ১১০ টাকা। ৪০ থেকে ৪২ টাকার ছোলা ৫২ থেকে ৫৫ টাকা। ৪০ টাকার চিনি ৪৪ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

 

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *