বিকিনি ছেড়ে হিজাব পরছেন কারলি

Hisabনগ্নতায় পরিচিতি ছিল তার। ছিলেন বিকিনি মডেল। নগ্ন শরীরে, বিকিনি পড়ে মডেলিং করেছেন এতোদিন। কিন্তু তিউনেশিয়ার মুসলিম যুবক বদলে দিয়েছেন তার সব। বিকিনি ছেড়ে তিনি এখন হিজাব পড়ছেন। শিখছেন ইসলামের বিধি বিধান। সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার। তিনি আমেরিকান গ্ল্যামার মডেল কারলি ওয়াটসন। ২৪ বছর বয়সী কারলি সিদ্ধান্ত নিয়েছে তার দুই বছরের মেয়েকে নিয়ে তিউনেসিয়ায় স্থায়ীভাবে বসবাসের। ডেইলি মেইল অনলাইন এ খবর দিয়েছে।

গত এপ্রিলে ছুটি কাটানোর জন্য তিউনিশিয়া বেড়াতে যান কারলি ওয়াটস। সেখানে গিয়েই মুহাম্মদ সালেহ নামের এক যুবকের সঙ্গে তার পরিচয় হয়। এরপর ভাললাগা। আর ভাললাগা থেকেই বিয়ে করার সিদ্ধান্ত। জানা গেছে, আগামী অক্টোবর মাস থেকেই কারলি তার একমাত্র কন্যা সন্তান নিয়ে মুহাম্মদের পরিবারের সাথে তিউনিশিয়ার মনাস্তির শহরে থাকবেন। সেখানে ছয় মাস অবস্থান করবেন। এসময়টাতে তিনি ইসলাম ধর্ম সম্পর্কে জানবেন এবং এরপরই ধর্মান্তরিত হয়ে বিয়ে করবেন সালেহকে।

কারলি জানান, তিনি এতদিন মডেলিং করেছেন। সারা রাত নাইটক্লাবে নগ্ন হয়ে নেচেছেন। মাতাল হয়ে ব্রা আর বিকিনি পড়ে নাচতেন। কিন্তু মুহাম্মদকে ভালবাসার পর থেকে তার বিশ্বাসে টনক নড়ে। তিনি জানান, মুহাম্মদ খুব ভাল ছেলে। সেও আমাকে খুব ভালবাসে। তাই তার সঙ্গেই জীবন কাটানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কারলি। কারলির মতে সালেহের ধর্মবিশ্বাসকে তিনি গুরুত্ব দেন। এ কারণে তিনি ইসলাম ধর্মে ধর্মান্তরিত হওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। করলি জানান, সালেহদের জীবনআচারে তিনি সুখেই সময় কাটাতে পারবেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *