চুয়াডাঙ্গা হত্যা মামলায় এক নারীসহ তিনজনের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

স্টাফ রিপোর্টার : চুয়াডাঙ্গা আলমডাঙ্গার গড়চাপড়া গ্রামের কৃষক বাবুর আলী ওরফে বাবু (৫০) হত্যা মামলার আসামি ইখতিয়ার আলী, জুয়েল হোসেন ওরফে কুসুম ও মহিমা খাতুন ওরফে ফুট্টরি ওরফে লাবনী নামের তিনজনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। গতকাল বুধবার বিকেল সাড়ে ৫টায় চুয়াডাঙ্গা দায়রা জজ আদালতের বিচারক মোহা: রবিউল ইসলাম এ রায় প্রদান করেন। মামলার অন্য দুজন আসামি কামাল হোসেন ও রশিদুল হককে বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়েছে।
এজাহার সূত্রে জানা গেছে, আলমডাঙ্গা উপজেলার গড়চাপড়া গ্রামের বাবুর আলী ওরফে বাবু ২০১৮ সালের ১৮ এপ্রিল বিকেলে বাড়ি থেকে বের হয়ে বাজারে যায় এবং একটি দোকানে চা পান করে সন্ধ্যা সাতটার পর থেকে নিখোজ হয়ে পড়ে। পরদিন সকালে গ্রামের একটি ছাপড়া ঘরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো বাবুর আলীর লাশ পাওয়া যায়। ঘটনার একদিন পর ২০ এপ্রিল বাবুর আলীর স্ত্রী মমতাজ খাতুন আলমডাঙ্গা থানায় অজ্ঞাত আসামিদের নামে হত্যা মামলা দায়ের করে। এ মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা এস আই সাইফুল ইসলাম ২০১৯ সালের ১০ এপ্রিল আদালতে চার্জশিট প্রদান করেন। চার্জশিটে ৫জনকে আসামি করা হয়। এ মামলায় মোট ১৬ জন সাক্ষীকে পরীক্ষা করা হয়।
আসামিদের মধ্যে জুয়েল হোসেন কুসুম ও মাহিমা খাতুন লাবনী জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী প্রদান করে।
সাক্ষ্যপ্রমানে মামলার আসামি গড়চাপড়া গ্রামের আনছার আলীর ছেলে ইখতিয়ার আলী (২৭), মৃত বিল্লাল হোসেনের ছেলে মোঃ জুয়েল হোসেন ওরফে কুসুম (২৫) ও মৃত শাবান আলীর মেয়ে মোছাঃ মাহিমা খাতুন ওরফে ফুট্টুরি ওরফে লাবনীকে (২৩) যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করা হয়। এ মামলার অন্য দুজন আসামি কামাল হোসেন ও রশিদুল হকের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের দুজনকে বেকসুর খালাস প্রদান করা হয়।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *