চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহসহ দেশের অধিকাংশ জেলায় শাদা পতাকা নিয়ে শিল্প ও বণিক সমিতির মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি সমঝোতার মাধ্যমে শান্তি প্রতিষ্ঠার আহ্বান : নিরাপত্তা দাবি

স্টাফ রিপোর্টার: হরতাল অবরোধ ও সহিংসতার প্রতিবাদে ব্যবসায়ীদের শীর্ষ সংগঠন বাংলাদেশ শিল্প ও বণিক সমিতি (এফবিসিসিআই) গতকাল রোববার শাদা পতাকা কর্মসূচি পালন করেছে। এরই অংশ হিসেবে চুয়াডাঙ্গা, ঝিনাইদহসহ দেশের অধিকাংশ জেলায় শিল্প ও বণিক সমিতি মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করে।

চুয়াডাঙ্গা চেম্বার সভাপতি ইয়াকুব হোসেন মালিকের নেতৃত্বে সমিতির প্রতিনিধিগণছাড়াও সাধারণ ব্যবসায়ীরা শাদা পতাকা হাতে নিয়ে আধা ঘণ্টাব্যাপি শহীদ হাসান চত্বরে মানববন্ধন আকারে অবস্থান করেন। নেতৃত্ববৃন্দ রাজনৈতিক দলগুলোর প্রতি সমঝোতার মাধ্যমে শান্তি প্রতিষ্ঠার আহ্বান জানান। সাম্প্রতিককালের রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে ব্যবসায়-বাণিজ্যে যে স্থবিরতা দেখা দিয়েছে সে বিষয়ে উদ্বেগ, ক্ষোভ ও হতাশার কথাও তুলে ধরেন ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ। বক্তারা দাবি করেন, বিরাজমান পরিস্থিতিতে ব্যবসায়ীদের পক্ষে ঋণের কিস্তি পরিশোধ করা কঠিন হয়ে পড়েছে। এ কারণে খেলাপি তালিকাভুক্ত না করে সময় বৃদ্ধির দাবি তোলেন। সুদ মওকুফেরও দাবি জানানো হয়। শাদা পতাকা নিয়ে আয়োজিত মানববন্ধনে নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, হরতাল অবরোধের মধ্যেও সকল বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান খোলা রাখা হবে।। সরকারের নিকট নিরাপত্তা দাবি করে বলা হয়, বাস্তবিক পক্ষেই চলমান পরিস্থিতিতে ব্যবসায়-বাণিজ্যসহ যাবতীয় অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে যে ঋণাত্মক অবস্থার সৃষ্টি হয়ে তা অসহনীয়। অনেক ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠানের শ্রমিক-কর্মচারীদের বেতন পরিশোধ করাও দুরূহ হয়ে পড়েছে বলেও জানান ব্যবসায়ীরা। ( ….. পাতার …. কলামে)

সংঘাত, প্রাণহানি ও শিল্প বাণিজ্য ধ্বংসের মতো রাজনৈতিক কর্মসূচি না দেয়ার জন্য রাজনীতিবিদদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে চুয়াডাঙ্গা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি’র উদ্যোগে ব্যবসায়ীরা শাদা পতাকা নিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে। গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত চুয়াডাঙ্গা শহরের শহীদ হাসান চত্বরে এ কর্মসূচি পালন করা হয়।

দেশের শীর্ষ ব্যবসায়ী সংগঠন দি ফেডারেশন অব বাংলাদেশ চেম্বার্স অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি’র (এফবিসিসিআই) আহ্বানে চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখার উদ্যোগে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। কর্মসূচিতে চুয়াডাঙ্গা চেম্বার অব কমার্স, জেলা দোকান মালিক সমিতি, পরিবেশক সমিতি, হোটেল রেস্টুরেন্ট মালিক সমিতি, ইটভাটা মালিক সমিতি ও ওষুধ ব্যবসায়ীদের সংগঠন কেমিষ্ট অ্যান্ড ড্রাগিস্ট সমিতিসহ বিভিন্ন পেশাজীবী সংগঠন এ কর্মসূচির সাথে সংহতি জানিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করে। এ সময় ব্যবসায়ীরা নিজ নিজ উদ্যোগে তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখে। আধ ঘণ্টাব্যাপি এ মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, চুয়াডাঙ্গা চেম্বার অব কমার্স ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি হাজি ইয়াকুব হোসেন মালিক, দোকানমালিক সমিতির সভাপতি আশাদুল হোসেন লেমন, সাধারণ সম্পাদক ইবরুল হাসান জোয়ার্দ্দার ইবু, শহিদ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক, পরিবেশক সমিতি, কেমিস্ট অ্যান্ড ড্রাগিস্ট সমিতির সভাপতি আব্দুল মজিদ জিল্লু, শফিউদ্দীন আহমেদ, সভাপতি, বড়বাজার ব্যবসায়ী সমিতি, মো. আব্দুল মোতালেব, সাধারণ সম্পাদক ইটভাটা মালিক সমিতি, আবুল কালাম আজাদ, সভাপতি, চুয়াডাঙ্গা জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি, শফিকুল ইসলাম বদা, ঠিকাদার কল্যাণ সমিতি, নাজমুল আলম খান, সভাপতি, রেলবাজার ব্যবসায়ী সমিতি, মামুনার রশিদ জোয়ার্দ্দার আংগুর, ভাইস চেয়ারম্যান, সদর উপজেলা ও আলীম উদ্দিন লস্কর, আহ্বায়ক চুয়াডাঙ্গা ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় সমিতি। বক্তারা বলেন, গত এক মাসে প্রাণহানিকর রাজনৈতিক কর্মসূচিতে তাদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়েছে। ব্যাংকের মোটা অঙ্কের সুদের জন্য রাতের ঘুম হারাম হয়ে গেছে। এনজিও থেকে ঋণ নিয়ে ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা তাদের আমানত হারিয়ে পথে বসেছে। ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ রাজনীতিবিদদের প্রতি সংঘাত, প্রাণহানি ও শিল্পবাণিজ্য ধ্বংসের মতো রাজনৈতিক কর্মসূচি না দেয়ার জন্য আহ্বান জানান।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির সিনিয়র সহসভাপতি শাহারিন হক মালিক, সহসভাপতি মঞ্জুরুল আলম মালিক লার্জ, পরিচালক একেএম সালাউদ্দিন মিঠু, সেলিম আহমেদ, আরিফ হোসেন জোয়ার্দ্দার সোনা, সালাউদ্দিন মো. মর্তুজা, হারুন অর রশিদ, নীল রতন সাহা, রাশেদুজ্জামান মালিক রাশেদ, তসলিম আরিফ বাবু, কামরুল ইসলাম হিরাসহ সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ। অনুষ্ঠানের শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন হাজি মো. সালাউদ্দিন চান্নু। পরিচালনা করেন চুয়াডাঙ্গা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির পরিচালক নাসির আহাদ জোয়ার্দ্দার। সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন বাংলাদেশ দোকান মালিক সমিতি চুয়াডাঙ্গা জেলা শাখা।

সরোজগঞ্জ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, গতকাল রোববার সকাল ১১টার দিকে সরোজগঞ্জ বাজার উন্নয়ন কমিটির উদ্যোগে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। বক্তব্য রাখেন সরোজগঞ্জবাজার উন্নয়ন কমিটির সভাপতি আব্দুল্লা শেখ, সহসভাপতি আব্দুর রহমান সব্দুল, উপদেষ্টা কমিটির সদস্য আজিজুল হক, সাবেক চেয়ারম্যান হাজি মহাশিন আলী মালিতা, ক্যাশিয়ার শরিফুল ইসলাম, সদস্য শাহিনুল ইসলাম, শাহাআলম চন্টু, ডা. মতিয়ার রহমান, ব্যবসায়ী আব্দুর রউফ মিয়া, আকিদুল ইসলাম, মোখলেচুর রহমান লিটন, জুয়েল রানা, মাসুম বিল্লাহ হাওলাদার, লাল্টু মিয়া, সেতু প্রমুখ। পরিচালনা করেন বাজার কমিটির সদস্য জিল্লুর রহমান। অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, সংঘাত, প্রাণহানি, শিল্পবাণিজ্য ধ্বংসের পথ পরিহার করে শান্তির স্বপক্ষে আসার জন্য সকল রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের অনুরোধ করেন এবং ব্যবসা প্রতিষ্ঠানসহ সকল ব্যবসায়ীর নিরাপত্তাসহ ব্যাংক ঋণের সুদ মওকুফ করার দাবি জানানো হয়।

ঝিনাইদহ অফিস জানিয়েছে, ঝিনাইদহে শাদা পতাকা নিয়ে মানববন্ধন করেছেন ব্যবসায়ীরা। রোববার সকাল সাড়ে ১১টায় শহরের পোস্টঅফিস মোড়ে জেলা চেম্বার অব কমার্স, বাস-ট্রাক মালিক সমিতি ও দোকান মালিক সমিতির আয়োজনে এ প্রতিবাদ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। আধা ঘণ্টাব্যাপি মানববন্ধনে জেলার ৬ উপজেলার ব্যবসায়ী, শ্রমিকসহ বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ অংশ নেয়। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য রাখেন ঝিনাইদহ জেলা চেম্বার সভাপতি মাহমুদুল ইসলাম ফোটন ও দোকানমালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মনোয়ারুল ইসলাম মন্টু, সহসভাপতি খোরশেদুল ইসলাম জিন্না, যুগ্মসম্পাদক মতিয়ার রহমানসহ ব্যবসায়ীবৃন্দ। এ সময় বক্তারা দেশের শিল্প ও ব্যবসা-বাণিজ্য বাঁচাতে দ্রুত রাজনৈতিক সঙ্কট সমাধানে উদ্যোগ নিতে প্রধান দুই দলের প্রতি আহ্বান জানান। বক্তারা আরও বলেন, অব্যাহত সহিংসতায় জনজীবনে নৈরাজ্য সৃষ্টি হয়েছে। পণ্য সরবরাহ চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে। নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের দাম বেড়ে গেছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *