চুয়াডাঙ্গার কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সংবর্ধনা সভায় হুইপ ছেলুন জোয়ার্দ্দার

বর্তমান সরকার সব সময় দেশের মানুষের কথা বলে

 

কবীর দুখু মিয়া বদরগঞ্জ থেকে: চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের দু বারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন ১০ম জাতীয় সংসদের হুইপ নির্বাচিত হওয়ায় চুয়াডাঙ্গার কুতুবপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেয়া হয়। গতকাল রোববার বিকেল ৩টার দিকে বদরগঞ্জ বাজারে এ সংবর্ধনা দেয়া হয়। কুতুবপুর ইউনিয়ন আ.লীগের সভাপতি আলহাজ মজিবুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা হুইপ সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন। হুইপ ছেলুন জোয়ার্দ্দারকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানায় জেলার বিভিন্ন রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক নেতৃবৃন্দসহ সর্বস্তরের মানুষ। বক্তব্য রাখেন- জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান শাখাওয়াত হোসেন টাইগার, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুল হক বিশ্বাস, জেলা কৃষকলীগের সভাপতি আজিজুল হক, ধর্মবিষয়ক সম্পাদক মাসুদউজ্জামান লিটু, সদর উপজেলা আ.লীগ সভাপতি আ.হান্নান নান্নু মিয়া, সদর উপজেলা আ.লীগ সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মান্নান মুন্সি, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি জুয়েল রানা, সিনিয়র সহসভাপতি সুস্তির আহম্মেদ জামিল, আলী আহম্মেদ, হাসানুজ্জামান মানিক, সদর উপজেলা আ.লীগ সাধারণ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন ঠাণ্ডু, উপজেলা যুবলীগের যুগ্মআহবায়ক নিলুয়ার হোসেন, যুবলীগ নেতা আরেফিন আলম রঞ্জু, চুয়াডাঙ্গা জেলা ইটভাটা মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মোতালেব, সদর উপজেলা আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা আজাদুল হক, মুক্তিযোদ্ধা গোলজার মাস্টার ও উসমান গনি, কুতুবপুর ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল লতিফ সরদার, সাংগঠনিক সম্পাদক সানোয়ার হোসেন, কুতুবপুর ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সভাপতি রাকিবুল ইসলাম, আ.লীগ নেতা জিল্লুর রহমান, উপজেলা আ.লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুল হক আশা, কৃষকলীগ নেতা মকছেদ আলী, বদরগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ শরিফুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম, মতিয়ার রহমান মতি, আজাদ রহমান, আতিয়ার রহমান মোল্লা, এলাহী মোল্লা, মোমিনুল ইসলাম, আশিফ রহমান, মহিলা আ.লীগের হাসিনা পারভীন, আছিয়া খাতুন প্রমুখ।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হুইপ বলেন, বর্তমান সরকার উন্নয়নের সরকার, এ সরকার সব সময় দেশের মানুষের কথা বলে। দেশের উন্নয়নের জন্য আ.লীগ সরকার আবারও ৫ বছরের জন্য ক্ষমতায় এসেছে, আমরা শিক্ষাব্যবস্থা, কৃষিব্যবস্থা, রাস্তা-ঘাট, বিদ্যুতসহ সার্বিক উন্নয়ন অব্যাহত রেখেছি। জামায়াত-বিএনপি যখন ক্ষমতায় ছিলো, তখন তারা সন্ত্রাস-দুর্নীতি করে কালো টাকার মালিক হয়েছে। দেশে তারা তালেবান তৈরি করে দেশের মানুষের ওপর ইসলামের নামে হরতাল ডাকা, যানবাহনে বোমা হামলা, কোরআন শরিফ পড়ানোসহ যুদ্ধাপরাধীদের বাঁচানোর জন্য দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করছে। তাই সকলেই মিলিত হয়ে বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার হাতকে আরও শক্তিশালী করতে সকল আ.লীগ নেতাকর্মীকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানাই। পরে কুতুবপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার আ.লীগ নেতারা হুইপ ছেলুন জোয়ার্দ্দারের কাছে তাদের কিছু দাবি তুলে ধরেন। দাবির মধ্যে সাহেবনগর গ্রাম থেকে দত্তাইল অসমাপ্ত পাকা রাস্তাটি সমাপ্তকরণ, নয়মাইল বাজার থেকে সিন্দুরিয়া হয়ে মর্তুজাপুর গ্রাম পযর্ন্ত রাস্তা পাকাকরণসহ কুতুবপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন রাস্তা, স্কুল-কলেজ, মসজিদ, পুলিশ ক্যাম্প ও বাণিজ্যিক ব্যাংক স্থাপন ও নিমার্ণের জন্য আহ্বান জানানো হয়। দাবি প্রস্তাবনার ওপর হুইপ ছেলুন জোয়ার্দ্দার বলেন, ক্রমে ক্রমে কুতুবপুর ইউনিয়নবাসীর এ দাবি পূরণ করার চেষ্টা করবো। অনুষ্ঠান শেষে কুতুবপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন দল থেকে হুইপের হাতে ফুল দিয়ে আ.লীগে যোগদান করেন। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন এমপির প্রতিনিধি সাইফুল ইসলাম স্বপন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *