রুবির জীবনের শঙ্কায় সালমানের মা নীলা চৌধুরী

স্টাফ রিপোর্টার: ভিডিও বার্তায় সালমান শাহকে হত্যা করেছে, এই দাবি করার পর বিউটিশিয়ান রাবেয়া সুলতানা রুবির জীবন নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন চিত্রনায়কের মা নীলা চৌধুরী। লন্ডন থেকে যমুনা টেলিভিশনকে দেয়া টেলি সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, এটা আল্লাহর কুদরত। এটা আমার, ওর ভক্ত ও দেশবাসীর দোয়ার ফসল। আশা করি, সামনে হয়তো আরও এমন কিছু বের হয়ে আসবে, যাতে সব পাগলের মতো হয়ে যাবে। অন্যায় চিরদিনই অন্যায়। অন্যায় প্রকাশ পাবেই।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ তাকে ধরে আনা হোক। দেশে এনে তার সাক্ষ্য নেয়া হোক। তাকে সেফ কাস্টোডিতে রাখা হোক। ও যাতে সেফ থাকে। তাকে তো মেরে ফেলাও হতে পারে। তাকে নিরাপত্তা দেয়া হোক। আমার নিজেরই নিরাপত্তা নেই। আমি তো পুরোপুরি নিরাপত্তাহীন। বাংলা চলচ্চিত্রের এক সময়ের তুমুল জনপ্রিয় নায়ক সালমান শাহর রহস্যজনক মৃত্যু হয় ১৯৯৬ সালে। তার মৃত্যুর পর পুত্রবধূ সামিরা হক, চলচ্চিত্র প্রযোজক ও ব্যবসায়ী আজিজ মোহাম্মদ ভাইসহ, ১১ জনকে ছেলের মৃত্যুর জন্য দায়ী করে আদালতে আবেদন করেন তার মা নীলা চৌধুরী।

সেই আসামিদের একজন সালমান শাহর বিউটিশিয়ান রাবেয়া সুলতানা রুবি সালমানের মৃত্যুর ২২ বছর পর সোমবার ফেসবুকে এক ভিডিও বার্তায় জানান, ‘সালমান শাহকে খুন করা হয়েছে। সেই খুনের সাথে জড়িত ছিলেন তার চীনা স্বামী। চীনাদেরকে দিয়ে এই খুন করানো হয়। এতে জড়িত ছিলেন সালমান শাহ’র স্ত্রী সামিরার পরিবারও। ভিডিওতে রুবি সালমান শাহ’র মা নীলা চৌধুরীকে উদ্দেশ্য করে কাতর কণ্ঠে বলেন, এই খুনের বিষয়ে আমি সব জানি। যেভাবেই হোক, আবার যেন মামলা তদন্তের ব্যবস্থা করা হয়। আমি যেমন করেই হোক আদালতে সাক্ষী দেবো।

রুবি বলেন, ‘সালমান শাহ আত্মহত্যা করে নাই, সালমান শাহ খুন হইছে। আমার হাসব্যান্ড এইটা করাইছে আমার ভাইরে দিয়ে। আমার হাসব্যান্ড করাইছে, এইটা সামিরার ফ্যামিলি করাইছে আমার হাসব্যান্ডরে দিয়ে, সবাইরে দিয়ে, সব চাইনিজ মানুষ ছিলো। সালমান শাহ আত্মহত্যা করে নাই, সালমান শাহ খুন হইছে।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *