প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা শুরু আজ

স্টাফ রিপোর্টার: দেশের বৃহত্তম পাবলিক পরীক্ষা প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী আজ বুধবার সকালে শুরু হচ্ছে। বিকেলে অনুষ্ঠিত হবে জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল (জেডিসি) পরীক্ষা।

প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনীতে অংশ নেবে ২৯ লাখ ৫০ হাজার ১৯৩ পরীক্ষার্থী। বিকেলে জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষায় অংশ নেবে ১৯ লাখ ২ হাজার ৭৪৬ পরীক্ষার্থী। দুটি পাবলিক পরীক্ষা মিলিয়ে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৫০ লাখ। সকাল ১১টায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী ও ইবতেদায়িতে গণিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। পরীক্ষা চলবে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত, এরপর বিকেল ২টায় অনুষ্ঠিত হবে জেএসসির চারু ও কারুকলা এবং জেডিসির কৃষি শিক্ষা এবং গার্হস্থ্য অর্থনীতি। একই দিনে একই স্কুলকেন্দ্রে দুটি পাবলিক পরীক্ষার আসনবিন্যাস ও ব্যবস্থাপনা নিয়ে বিপাকে পড়েছেন কেন্দ্র সচিবরা। দুটি পরীক্ষার মাঝে সময়ের ব্যবধান মাত্র ৩০ মিনিট। প্রতিবন্ধী পরীক্ষার্থীদের জন্য অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় সরকারিভাবেই বরাদ্দ দেয়া আছে। কেন্দ্র সচিবদের মাত্র ১০ মিনিটের মধ্যে নতুন পরীক্ষা নেয়া শুরু করতে হবে। আজ ২০ নভেম্বর জেএসসির পরীক্ষা শেষ হওয়ার কথা থাকলেও বিএনপি নেতৃত্বাধীন ১৮ দলীয় জোটের হরতালের কারণে স্থগিত পরীক্ষা নেয়া হবে ২৩ নভেম্বর পর্যন্ত। প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা আজ শুরু হয়ে

২৮ নভেম্বর শেষ হওয়ার কথা।

মেহেরপুর অফিস জানিয়েছে, মেহেরপুর জেলায় প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় এ বছর জেলার ৩ উপজেলার ৩১টি কেন্দ্রে ১১ হাজার ৭১০ জন শিক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। এছাড়া জেলার ৩টি কেন্দ্রে ৮৯৩ জন পরীক্ষার্থী ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে।

মেহেরপুর জেলা প্রাথমিক শিক্ষাঅফিস সূত্রে জানা গেছে, এ বছর সদর উপজেলার ১৪টি কেন্দ্রে ৪ হাজার ৭০৪ জন, গাংনী উপজেলার ১৩টি কেন্দ্রে ৫ হাজার ১৯৮ জন ও মুজিবনগর উপজেলার ৪টি কেন্দ্রে এক হাজার ৮০৮ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। এছাড়া মেহেরপুর সদর উপজেলার একটি কেন্দ্রে ৪৪৪, গাংনী উপজেলার একটি কেন্দ্রে ৩২৬ ও মুজিবনগর উপজেলার একটি কেন্দ্রে ১২৩ পরীক্ষার্থী ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে।

ডাকবাংলা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ডাকবাংলার সাধুহাটি ও নারায়ণপুর দুটি কেন্দ্রে ২৮টি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও ৩টি মাদরাসার ছাত্র-ছাত্রী অংশগ্রহণ করছে। সাধুহাটি কেন্দ্রে ১৯ প্রতিষ্ঠানের ৪৫৮ পরীক্ষার্থী এবং উত্তর নারায়ণপুর কেন্দ্রে ১২টি প্রতিষ্ঠানের ৪৭২ পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করছে। সাধুহাটি কেন্দ্রসচিব শহিদুল  ইসলাম জানান পরীক্ষা নকলমুক্ত রাখার জন্য সবরকমের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *