৮ জেলার প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা স্থগিত

স্টাফ রিপোর্টার: প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নিয়োগের আট জেলার লিখিত পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। আটটি জেলার নাম প্রকাশ করেনি মন্ত্রণালয়। তবে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, প্রশ্ন ফাঁস হওয়া আট জেলার মধ্যে ময়মনসিংহ, সাতক্ষীরা, কক্সবাজার ও নারায়ণগঞ্জ রয়েছে। এছাড়া অভিযোগ তদন্তে চার সদস্যের একটি কমিটিও গঠন করেছে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়।

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এস এম আশরাফুল ইসলাম বলেন, প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে এসব জেলার পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। তদন্তে অভিযোগ প্রমাণিত হলে পরীক্ষা বাতিল করা হবে। তদন্ত কমিটি শিগগিরই প্রতিবেদন দেবে বলে জানান তিনি। সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রাক-প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগে গত ৮ নভেম্বর চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর ও ঝিনাইদহসহ সারাদেশের এক হাজার ৩৬২টি কেন্দ্রে লিখিত পরীক্ষা হয়। এতে নয় লাখ ৬৮ হাজার ১২৭ জন অংশ নেন। পরীক্ষার আগের রাতে দেশের বিভিন্ন জেলায় প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগ উঠলে পুলিশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করে। চুয়াডাঙ্গায় প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়নি। অতিরিক্ত সচিব বলেন, বেশ কয়েকটি সেটের প্রশ্নে পরীক্ষা হয়েছে। ময়মনসিংহ জেলায় যে সেটের প্রশ্ন দেয়া হয়েছিলো তা ফাঁস হয়েছে বলে বিশ্বাসযোগ্য তথ্য আছে। ওই সেটে যেসব জেলায় পরীক্ষা নেয়া হয়েছে সেই জেলাগুলোর পরীক্ষা স্থগিত করা হয়েছে। তবে তদন্তের স্বার্থে সব জেলার নাম প্রকাশ করতে রাজি হননি তিনি। প্রাক-প্রাথমিক শ্রেণিতে প্রায় সাত হাজার সহকারী শিক্ষক নিয়োগে গত ২ জুলাই বিজ্ঞপ্তি দেয় প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *