২৮ ঘণ্টার মাথায় মারা গেলেন অগ্নিদগ্ধ বৃদ্ধা ফাতেমা খাতুন

স্টাফ রিপোর্টার: অগ্নিদগ্ধ হওয়ার ২৮ ঘণ্টার মাথায় মারা গেলেন চুয়াডাঙ্গা সিঅ্যান্ডবি মাঠপাড়ার বৃদ্ধা ফাতেমা বেগম (৭০)। চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তিনি মারা যান। গতকালই বাদ জোহর নামাজে জানাজা শেষে সিঅ্যান্ডবি উত্তরপাড়ার কবরস্থানে দাফন কাজ সম্পন্ন করা হয়।য়
ফাতেমা বেগম সিঅ্যান্ডবি মাঠপাড়ার বৃদ্ধ জামাত আলীর স্ত্রী। ৭ ছেলে এক মেয়ের জননী ফাতেমা বেগম গতপরশু শনিবার ভোরে অগ্নিদগ্ধ হন। পরিবারের সদস্যরা বলেন, ভোরে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দেয়ার জন্য কেরোসিনে ল্যাম্প নিয়ে হাঁটার সময় পড়ে গেলে পরনের পোশাকে আগুন লাগে। দাউ দাউ করে আগুন জ্বলছে দেখে স্বামী বৃদ্ধ জামাত আলী ছুটে যান। তিনি আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। তারও হাত ঝলসে যায়। প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করান। প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে জামাত আলী বাড়ি ফিরলেও ৭৫ শতাংশের বেশি আগুনে পুড়ে গুরুতর আহত ফাতেমা বেগমকে হাসপাতালে রেখেই চিকিৎসা দেয়া হয়। উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে নেয়ার পরামর্শ দেন কর্তব্যরত চিকিৎসক। ফাতেমা বেগমকে ঢাকায় নেয়ার তেমন উদ্যোগ লক্ষ্য করা যায়নি। অবশেষে গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে মারা যান ফাতেমা বেগম। লাশ নেয়া হয় নিজবাড়ি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *