১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মেহেরপুর-১ আসনে দোদুল অপর আসনে স্বতন্ত্রপ্রার্থী মকবুল নির্বাচিত

মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুর-১ আসনের নির্বাচন শান্তিপূর্ণভাবে সম্পন্ন হয়েছে। নির্বাচনে মেহেরপুর-১ আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী প্রফেসর ফরহাদ হোসেন দোদুল জয় লাভ করেছেন। ভোট পোল হয়েছে শতকরা প্রায় ৪০ ভাগ।

জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, নির্বাচনে মেহেরপুর-১ (সদর-মুজিবনগর) আসনে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী প্রফেসর ফরহাদ হোসেন দোদুল (নৌকা) ৬৬ হাজার ২২৭ ভোটের বিশাল ব্যবধানে জয়লাভ করেছেন। তিনি ৮০ হাজার ১৪৬ ভোট পেয়েছেন। তার একমাত্র প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাড. ইয়ারুল ইসলাম (ফুটবল) ১৩ হাজার ৯১৯ ভোট পেয়ে পরাজিত হয়েছেন। মেহেরপুর-১ আসনে ৯৮টি কেন্দ্রের মোট ভোটার ছিলো ২ লাখ ৪৮ হাজার ৩৩৯ জন। এ নির্বাচনে ৯৮ হাজার ২৬৫ জন ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। এর মধ্যে বাতিল ভোটের সংখ্যা ৪ হাজার ২শ।  এ আসনে শতকরা ৩৯ দশমিক ৫৭ ভাগ ভোট পোল হয়েছে।

সকাল ৮টার দিকে প্রফেসর ফরহাদ হোসেন দোদুল মেহেরপুর সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে তার ভোট দেন।

গতরাতে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হওয়ার খবর পাওয়ার পরপর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মিয়াজান আলী, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ মো. গোলাম রসুল, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আব্দুস সালাম বাবলু বিশ্বাস, আব্দুল হালিম, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহসভাপতি অ্যাড. আব্দুস সালাম, অ্যাড. পল্লব ভট্টাচার্যসহ আওয়ামী লীগ ও বিভিন্ন অংগ সংগঠনের নেতা-কর্মীরা তার সাথে দেখা করেন ও তাকে ফুল দিয়ে বরণ করেন।

গাংনী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মেহেরপুর-২ (গাংনী) আসনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মকবুল হোসেন ১০ হাজার ২৮১ ভোটে বিজয়ী হয়েছেন। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন না পেয়ে তিনি স্বতন্ত্র প্রার্থী হয়েছিলেন। এ আসনের মোট ৮০টি কেন্দ্রের চুড়ান্ত বেসরকারি ফলাফলে ফুটবল প্রতীক নিয়ে তিনি পেয়েছেন ৪৬ হাজার ৭৭০ ভোট। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ প্রার্থী গাংনী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এমএ খালেক নৌকা প্রতীকে পেয়েছেন ৩৬ হাজার ৪৮৯ ভোট। অপর প্রার্থী জেপি (মঞ্জু) আব্দুল হালিম বাইসাইকেল প্রতীকে পেয়েছেন ১ হাজার ৩২৩ ভোট। ছোটোখাটো কয়েকটি বিছিন্ন ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণভাবেই ভোটগ্রহণ শেষ হয়। মেহেরপুর-২ আসনে মোট ২ লাখ ৮ হাজার ৩০২ জন ভোটারের মধ্যে ভোট প্রয়োগ করেছেন ৮৭ হাজার ৪৩৮ জন। ভোট বাতিল হয়েছে ২ হাজার ৮৫৬টি। গড় ভোট পোল হয়েছে ৪১ দশমিক ৯৭ ভাগ।

রাত ৯টার দিকে সহকারী রিটার্নিং অফিসার গাংনী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুস সালাম বেসরকারিভাবে মকবুল হোসেনকে বিজয়ী ঘোষণা করেন। এ সময় ফুলের মালা দিয়ে মকবুল হোসেনকে তার সমর্থকরা বরণ করেন। তারা এ বিজয়কে জনগণের বিজয় বলে আখ্যায়িত করেন। সকাল ৮টা থেকে ভোটগ্রহণ শুরু হলেও শুরুর দিকে ভোটারের উপস্থিতি ছিলো একেবারেই কম। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর নজরদারির কারণে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। এ আসনটিতে সব চেয়ে কম ভোট পড়েছে করমদি গ্রামের দুটি কেন্দ্রে। গ্রামটি বিএনপি অধ্যুষিত। করমদি পূর্বপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ২ হাজার ৮শ ৫৭টির মধ্যে ১৫৪ এবং করমদি মাধ্যমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট ৩ হাজার ২শ ৮৩টির মধ্যে ভোট পোল হয়েছে মাত্র ৩৮টি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *