হামলাকারীদের অসভ্য বর্বর বলে আখ্যা : সাংবাদিকদের প্রতিনিধিসভা আজ

চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবে নগ্ন বর্বরোচিত হামলার প্রতিবাদ : কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবে নগ্ন বর্বরোচিত হামলার প্রতিবাদে প্রেসক্লাব কার্যকরী কমিটির সভায় কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। এরই অংশ হিসেবে আজ সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবে ক্লাবসদস্যসহ উপজেলা ও ইউনিট সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের সাথে প্রতিনিধিসভা অনুষ্ঠিত হবে। অপরদিকে গতকালও বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষে প্রতিবাদ জানানো হয়েছে। রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দের অনেকে গতকালও প্রেসক্লাব পরিদর্শন শেষে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করতে গিয়ে ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

গতকাল রোববার সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত কার্যকরী কমিটির সভায় সভাপতিত্ব করেন প্রেসক্লাব সভাপতি মাহতাব উদ্দীন। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন সাধারণ সম্পাদক সরদার আল আমিন। প্রেসক্লাবে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর, চারজন সাংবাদিককে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করার প্রতিবাদে তাৎক্ষণিকভাবে গৃহীত কর্মসূচি গ্রহণ ও তা পালনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বিশদ আলোচনা করা হয়। দায়েরকৃত মামলার অগ্রগতি সম্পর্কেও তথ্য উপস্থাপনসহ হামলার পর যারা সরেজমিনে প্রেসক্লাব পরিদর্শন করেছেন এবং প্রতিবাদ জানিয়ে আন্দোলন কর্মসূচির সাথে একাত্মতা ঘোষণা করেছেন তাদেরকে বিশেষভাবে স্মরণ করা হয়। বলা হয়, প্রেসক্লাবের মর্যাদা তথা অস্তিত্ব রক্ষার প্রশ্নে আন্দোলনে ইতিবাচক সাড়া আগামী দিনের পাথেয়। তবে পুলিশের সামনে হামলার ঘটনা ঘটলেও দায়িত্বহীনতার দায়ে কারো বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ না করার বিষয়টি সাংবাদিকসহ সচেতনমহলকে আশাহত করেছে। সভায় জেড আলম, নাসির উদ্দীন আহম্মেদ, রফিকুল ইসলাম, রফিক রহমান, শেখ সেলিম, শাহ আলম সনি, রাজীব হাসান কচি, মরিয়ম শেলী, বিপুল আশরাফ, জামান আখতার, জাহিদুল ইসলাম, সাংবাদিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহার আলী প্রমুখ কর্মপরিকল্পনা গ্রহণসহ পরবর্তী পদক্ষেপের বিষয়ে মতামত উপস্থাপন করেন।

সভার একপর্যায়ে গতকালও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দের অনেকেই প্রেসক্লাব পরিদর্শন শেষে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। জাতীয়পার্টির চুয়াডাঙ্গা জেলা সভাপতি অ্যাড. সোহরাব হোসেন বলেন, চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাব অরাজনৈতিক এবং সকলের কথা বলার স্থান। প্রেসক্লাবে হামলা মানে সকলের ওপর হামলা। এ হামলা মেনে নেয়া যায় না। আমরা তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে হামলাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাচ্ছি। চুয়াডাঙ্গা চেম্বার সভাপতি হাজি ইয়াকুব হোসেন মালিক প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে বলেছেন, প্রেসক্লাবে যারা হামলা চালিয়েছে তারা শুধু গণতন্ত্রেরই শত্রু নয়, সভ্য সমাজে মানুষরূপী অসভ্য। ওদের শাস্তি হওয়া দরকার। প্রেসক্লাবে নগ্ন হামলার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়ে আন্দোলন সংগ্রামের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে তিনি বলেন, চুয়াডাঙ্গা চেম্বার সব সময়ই ন্যায়ের পক্ষে আছে। চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাব যেহেতু ন্যায়ের প্রতীক, সেহেতু প্রেসক্লাবে হামলার ঘটনায় ন্যায়বিচার হওয়া প্রয়োজন। প্রেসক্লাবে স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন জেলার কৃতীসন্তান দেশের খ্যাতিমান সাংবাদিক বাবলুর রহমান। তিনি বলেছেন, সাংবাদিকরা রাজনৈতিক নেতাদের প্রতিপক্ষ নন। সুন্দর সমাজ গঠনে সাংবাদিকদের গুরুত্বের কথা বলে শেষ করা যায় না। অথচ সাংবাদিকদের ক্লাবে নগ্ন হামলা চালানো হয়েছে। এ ঘটনা শুনে কোনো বিবেকবান মানুষ হামলাকারীদের ধিক্কার না দিয়ে থাকতে পারে না। আমিও ওদের ধিক্কার জানিয়ে উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

গত বৃহস্পতিবার দুপুরে চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন চলাকালে ধারালো অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে মিছিলকারীরা প্রেসক্লাবে নগ্ন হামলা চালায়। ৫টি মোটরসাইকেলসহ ক্লাবের পার্টিশন গ্লাস, অর্ধশত চেয়ার ভেঙে তছনছ করে তারা। হামলায় চারজন সাংবাদিক আহত হন। এ ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলায় ইতোমধ্যে চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা গতকাল বেলা ১১টার দিকে আলামত সংগ্রহের পাশাপাশি প্রেসক্লাব সভাপতিকে মামলার সর্বশেষ অগ্রগতি সম্পর্কে তথ্য দিয়ে বলেন, আসামিদের অনেকেই আত্মগোপন করেছে। আমরা তাদের সম্পর্কে তথ্য সংগ্রহের পাশাপাশি এজাহারে দেয়া নামের তালিকাও তদন্তের স্বার্থে যাচাই-বাছাই করছি। তদন্তে কোনো প্রকারের গাফিলতির সুযোগ নেই। পুলিশ সুপার এ মামলাটি সরাসরি তদারকি করছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *