হাট ফেরত গরু ব্যবসায়ীদের পাউয়ারটিলার আটকে ডাকাতি : ধারালো অস্ত্রের কোপ

চুয়াডাঙ্গা জীবননগরের আন্দুলবাড়িয়াসরোজগঞ্জ সড়কের আতাতলায় গাছ ফেলে ডাকাতদলের তাণ্ডব

 

আন্দুলবাড়িয়া প্রতিনিধি: জীবননগরের আন্দুলবাড়িয়া-সরোজগঞ্জ সড়কের আতাতলা নামক স্থানে ৭-৮ জনের একদল ডাকাত তাণ্ডব চালিয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে সড়কে গাছ ফেলে পশুহাট ফেরত গরু ব্যবসায়ীদের নিকট থেকে নগদ টাকা ডাকাতি করেছে ডাকাতদল। ডাকাতদলের ধারালো অস্ত্রের কোপে একজন গরু ব্যবসায়ী রক্তাক্ত জখম হয়েছে। ডাকাতদল পাউয়ারটিলার গতিরোধ করে গরু ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। একজন গরু ব্যবসায়ীয়র নিকট থেকেই নগদ ৯৭ হাজার টাকা ডাকাতি হয়েছে। অন্যদের নিকট থেকে কতোটা টাকা ডাকাতি করা হয়েছে তা তাৎক্ষণিকভাবে জানা সম্ভব হয়নি। সড়কে গাছ ফেলে ডাকাতির সময় দূর থেকে অন্য গরু ব্যবসায়ীরা দেখে তাদের বহন করা আলমসাধু, পাউয়ারটিলার দ্রুত পিছু নিয়ে চিৎকার শুরু করে। এলাকাবাসী প্রতিরোধ গড়ে তোলে। তবে এলাকাবাসী ঘটনাস্থলে পৌঁছুনোর আগেই ডাকাতদল নাবাল মাঠের দিকে পালিয়ে যায়। ঘটনাস্থলের অদূরেই ছিলো পুলিশ। জনগণের চিৎকারে পুলিশও পরে ঘটনাস্থলে পৌঁছায়। পুলিশ-জনতা নামাল মাঠসহ পার্শ্ববর্তী এলাকা তল্লাশি চালায়। গতরাত ১০টায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ডাকাতদলের একজন সদস্যেরও টিকি ছুঁতে পারেনি পুলিশ। চিহ্নিত স্থানে পুলিশি টহল থাকার কথা থাকলেও গতরাত ৮টার দিকে কেন ছিলো না তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। একই সাথে স্থানীয়রা আতাতলা নামক স্থানে পুলিশ বক্স স্থাপনের দাবি তুলেছে।

জানা গেছে, গতকাল বৃহস্পতিবার জীবননগরের শিয়ালমারী পশুহাট থেকে ঝিনাইদহ জেলার সাধুহাটি ইউনিয়নের মামুনশিয়া গ্রামের সাহেব আলীর ছেলে গরুব্যবসায়ী কামাল হোসেন, রশিদ, স্বপনসহ ৭ জন গরু ব্যবসায়ী রাত ৮টার দিকে পাউয়ারটিলারযোগে আন্দুলবাড়িয়া সরোজগঞ্জ সড়ক পথ দিয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। পথিমধ্যে বেলতলা রেলগেটের অদূরে আতাতলায় পৌঁছুলে ৬-৭ জনের সশস্ত্র ডাকাতদল সড়কে গাছ ফেলে পাউয়ারটিলারটি গতিরোধ করে। গরুব্যবসায়ীরা কোনো কিছু বুঝে ওঠার আগেই ডাকাতদল দেশীয় ধারালে অস্ত্র দিয়ে এক গরু ব্যবসায়ীকে ঘাড়ে কোপ মেরে আতক্ষিত করে লুটপাটে মত্ত হয়। পেছনে অপর একটি আলমসাধু গাড়ি ডাকাতির ঘটনা বুঝতে পেরে পিছুটান দিয়ে আর্তচিৎকার দিলে জনতা প্রতিরোধে ঘটনাস্থলে পৌঁছুলে ডাকাতদল অবস্থা বেগতিক দেখে নাবাল মাঠের দিকে সটকে পড়ে।

সূত্র জানায়, ঘটনাস্থলের অদরে পোকামারী মোড়ে শাহাপুর ক্যাম্প পুলিশের টইলদল অবস্থান করছিলো। জনতার চিৎকারে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছুলে পুলিশ-জনতা মাঠ তল্লাশি করে ডাকাতদলের কোনো সন্ধান পায়নি। আহত গরু ব্যবসায়ীকে উদ্ধার করে রাতে চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার তিতুদহ ইউনিয়নের সড়াবাড়িয়া গ্রামে পল্লি চিকিৎসকের নিকট নিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাড়িতে নেয়া হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার জীবননগরের শিয়ালমারী পশুহাটের দিন। এদিন বিভিন্ন এলাকার গরু ব্যবসায়ীরা হাটে গরু বেচাকেনা করে ট্রাক, পাউয়ারটিলার, আলমসাধু ও লাটাহাম্বারযোগে আন্দুলবাড়িয়া-সরোজগঞ্জ সড়ক পথ হয়ে ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে যায়। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতেই ডাকাতদল টার্গেট নেয় আতাতলা নির্জন সড়কে। ওই ছিনতাই স্পটে গাছ ফেলে একের পর এক ডাকাতি সংঘটিত করে থাকে। গতকাল সড়কে পুলিশ টইলদল থাকলেও ঘটনার সময় টইলদলের অবস্থান ছিলো ঘটনাস্থলের অদূরেই। রাতেই পুলিশ-জনতা গাছটি সড়ক থেকে অপসরণ করে। আন্দুলবাড়িয়া-সরোজগঞ্জ সড়কে একের পর এক ডাকাতি সংঘটিত হওয়ায় পথচারীরা আতষ্কিত হয়ে পড়েছেন। এলাকাবাসী ওই স্পটে পুলিশ বক্স স্থাপনের দাবি জানিয়েছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *