হাওড়ের পানি পরীক্ষা করবে আনবিক শক্তি কমিশন

 

স্টাফ রিপোর্টার: হাওড় ও নদীতে মাছ মরে ভেসে ওঠার ঘটনার প্রকৃত কারণ উদঘাটন করতে শনিবার রাতে সুনামগঞ্জ পৌঁছেছে বাংলাদেশ আনবিক শক্তি কমিশনের একটি প্রতিনিধিদল। রোববার সকাল থেকে কাজ শুরু করবেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। গতকাল শনিবার সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক (ডিসি) শেখ রফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। এদিকে গতকাল শনিবার হাওরের পানি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উদ্ভিদ বিদ্যা বিভাগের পাঁচ সদস্যের প্রতিনিধিদল। তারা পানিতে ইউরেনিয়ামের উপস্থিতির বিষয়টি নাকচ করে দিয়েছেন। বিষয়টি আরও ভালোভাবে খতিয়ে দেখতে আনবিক শক্তি কমিশনের প্রতিনিধিদলটি সুনামগঞ্জ যাবে।

ডিসি জানান, আনবিক শক্তি কমিশনের প্রতিনিধিদলটি সুনামগঞ্জের বিভিন্ন হাওর ঘুরে পানি পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে এতে তেজস্ক্রিয়তার (ইউরেনিয়াম) উপস্থিতি আছে কি-না তা দেখবেন। এদিকে হাওরের পানি পরীক্ষার পর ঢাবির উদ্ভিদ বিদ্যা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. আজমল হোসেন ভূঁইয়া বলেন, ‘পানিতে ইউরেনিয়ামের উপস্থিতির বিষয়টি প্রপাগান্ডা হতে পারে। এটার কোনো ভিত্তি আমরা এখানে পাইনি। ইউরেনিয়াম এখানকার পানিতে কোন সোর্স থেকে এসেছে বা আসবে সেটা আসলে প্রশ্নসাপেক্ষ। তিনি বলেন, ধানক্ষেতে ব্যবহৃত সার ও কীটনাশকের প্রতিক্রিয়ায় হাওরের পানিতে এমোনিয়া গ্যাসের সৃষ্টি হয়েছে। ঢাবির প্রতিনিধিদলের নেতৃত্বে দেন উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের শিক্ষক অধ্যাপক ড. মনিরুজ্জামান।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *