স্টেশনে মা-মেয়ের বাগবিতণ্ডা : চুয়াডাঙ্গায় বাল্যবিয়ে পড়িয়েছেন কাজি আকরাম!

 

স্টাফ রিপোর্টার: চতুর্দিকে যখন বাল্যবিয়ে রোধে সোচ্চার সকলে, তখনও চুয়াডাঙ্গা পলাশপাড়ার আকরাম কাজি বাল্যবিয়ে পড়িয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বছরের এসএসসি পরীক্ষার্থীকে চুয়াডাঙ্গা ফার্মপাড়ার আনন্দের সাথে দিব্যি বিয়ে পড়িয়ে দিয়েছেন। তাও আবার ৯ মাস আগে। গত জুন মাসে।

চুয়াডাঙ্গা সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রী এবার এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নেয়ার আগেই তার প্রেমিক ফার্মপাড়ার সিরাজুল ইসলামের ছেলে দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র আনন্দ’র সাথে গোপনে বিয়ে করে। বিয়ের কয়েক মাসের মাথায় বিষয়টি প্রকাশ পায়। এসএসসি পরীক্ষার্থী তার স্বামীর ঘরে ওঠে। সংসারও শুরু করে। স্বামী বেকার। সেখানেও অশান্তি। এক পর্যায়ে মা তার সন্তান এসএসসি পরীক্ষার্থীকে বাড়ি ফিরিয়ে নিয়ে যায়। সুযোগ বুঝে আবারও স্বামীর বাড়ি ওঠে। স্বামী তখন বাড়িছাড়া। কেন? স্ত্রীকে নিয়ে বাড়িতে থাকতে না পারার কষ্টে অভিমানে কয়েক দিন আগে নিরুদ্দেশ হয়েছে। ফলে ফার্মপাড়ার ওই বাড়ি থেকে গতকাল শুক্রবার ফের ফিরিয়ে নেন মেয়ের মা। নিজ বাসায় নেয়ার পর গতরাতে ১টার দিকে খুলনায় নেয়ার উদ্দেশে চুয়াডাঙ্গা রেলওয়ে স্টেশনে নেয়া হলে শুরু হয় মা-মেয়ের বাগবিতণ্ডা। জড়ো হয় লোক। বিস্তারিত জানার পর স্থানীয়রা আকরাম কাজির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে জেলা প্রশাসকের দৃষ্টি আকর্ষণ করে।

শেষ পর্যন্ত স্থানীয়রা বুঝিয়ে মেয়েকে তার মায়ের সাথেই চুয়াডাঙ্গার বাসায় ফিরিয়েছেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *