সোহেলের স্ত্রী আটক : আরো আড়াই লাখ টাকা উদ্ধার

স্টাফ রিপোর্টার: সোনালী ব্যাংক কিশোরগঞ্জ শাখা থেকে সুড়ঙ্গ খুঁড়ে চুরি করা আরো আড়াই লাখ টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ। চুরির হোতা ইউসুফ মুন্সী ওরফে সোহেলের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী গতকাল শনিবার রাজধানীর কদমতলী এলাকার একটি বন্ধ বাসা থেকে টাকাগুলো উদ্ধার করা হয়েছে। এছাড়া আটক করা হয়েছে ইউসুফের স্ত্রী মাহিলা খাতুনকে (২৪)। গতকাল শনিবার ঢাকার যাত্রাবাড়ী থেকে তাকে আটক করে কিশোরগঞ্জ পুলিশ।

গত ২৬ জানুয়ারি সোনালী ব্যাংক থেকে টাকা চুরির ঘটনাটি ধরা পড়ে। দু দিন পর রাজধানীর শ্যামপুর থেকে গ্রেফতার করা হয় ইউসুফ ও তার ভাই ইদ্রিসকে। উদ্ধার করা হয় ১৬ কোটি ১৯ লাখ টাকাভর্তি পাঁচটি বস্তা। গতকাল আরো আড়াই লাখ টাকাসহ মোট উদ্ধার হলো ১৬ কোটি সাড়ে ২১ লাখ টাকা। এখনো সাড়ে ১৮ লাখ টাকা উদ্ধারের বাকি আছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কিশোরগঞ্জ মডেল থানার ওসি মো. আবদুল মালেক জানান, ইউসুফ কদমতলীর ওই বাসাটিও ভাড়া নিয়েছিলেন। আটক মাহিলা খাতুন জেলার পাকুন্দিয়ার চিলাকারা গ্রামের হেলাল উদ্দিনের মেয়ে। তাকে নিয়েই কিশোরগঞ্জ শহরের নগুয়া এলাকায় বসবাস করতেন ইউসুফ।

Leave a comment

Your email address will not be published.