সিজার করে নবজাতক ভূমিষ্ঠ করেও শেষ পর্যন্ত বাঁচিয়ে রাখা গেলো না!

স্টাফ রিপোর্টার: দ্বিতীয় সন্তানের পর তৃতীয় সন্তানকেও বাঁচাতে পারলেন না চুয়াডাঙ্গা আলমডাঙ্গার বটিয়াপাড়ার মিতা খাতুন ও তার স্বামী আব্দুস সালাম। গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যায় চুয়াডাঙ্গার রাজধানী ক্লিনিকে সিজার করা হয়। রাত ৮টার দিকে নবজাতকের মৃত্যু হয়।

নবজাতকের মৃত্যু কেন? মিতা খাতুনের প্রথম সন্তান স্বাভাবিকভাবেই বেড়ে উঠছে। দ্বিতীয় সন্তান ভূমিষ্ঠ করতে সিজার করা হয়। সে সন্তান বাঁচেনি। মিতা খাতুন তৃতীবারের মতো সন্তান সম্ভবা হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিয়েই চলতে থাকেন। গতকাল সকালে চিকিৎসকের আসেন। বেলা ১২টার দিকে রাজধানী ক্লিনিকে ভর্তি করা হয়। সন্ধ্যায় অস্ত্রোপচারে কন্যাসন্তান প্রসব করানো হয়। রাত ৮টার দিকে মারা গেলে চিকিৎসক বলেছেন, প্রসূতির পূর্ব থেকেই সমস্যা ছিলো। এ কারণে নবজাতককে শেষ পর্যন্ত বাঁচানো সম্ভব হলো না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *