সাংবিধানিক কাঠামোর মধ্যে বিএনপির দাবি মানা হবে : প্রধানমন্ত্রী

স্টাফ রিপোর্টার: নির্বাচনকালীন নির্দলীয় সরকার ও তফশিল প্রত্যাহারের দাবিতে আন্দোলনরত প্রধান বিরোধীদল বিএনপির দাবি দাওয়া পূরণের আশ্বাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তবে সাংবিধানিক কাঠামোর বাইরে কোনো দাবি মানতে অপারগতা প্রকাশ করেছেন তিনি। গতকাল বুধবার ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে আওয়ামী লীগের সংসদীয় বোর্ডের সভায় সূচনা বক্তব্যে তিনি এ আশ্বাস দেন। একই সাথে যুদ্ধাপরাধী দল জামায়াতের সঙ্গ ত্যাগ করার জন্য বিএনপির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

গতকাল বুধবার সকাল ১১টায় শুরু হওয়ার কথা থাকলেও শেখ হাসিনা ১১টা ৩৫ মিনিটে আসেন এবং পৌনে ১২টায় সভা শুরু হয়। এ সভায়ই সংসদ নির্বাচনের জন্য দলীয় মনোনয়ন চূড়ান্ত করার কথা রয়েছে। সভার শুরুতে শেখ হাসিনা বলেন, বিএনপি তাদের দোসর জামাতকে ছাড়া নির্বাচনে জয়লাভ করতে পারবে না জেনে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে না। উচ্চ আদালত জামায়াতের নিবন্ধন বাতিল করেছে। এদলটি একাত্তরে খুন, ধর্ষণ, লুটপাট করেছে। অথচ বিএনপি তাদের প্রতি সহানুভূতি দেখাচ্ছে। এটা দুঃখজনক।
বিএনপিকে জামায়াতের সঙ্গ ত্যাগ করে জনগণের কাতারে আসার আহ্বান জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আন্দোলন সংগ্রাম করে কোনো লাভ হবে না। বিএনপি প্রধান খালেদা জিয়ার উদ্দেশে তিনি বলেন, সংবিধানের ৫৭’র ৪ ধারা ভালো করে পড়ুন। আপনি কি আবারো ১/১১ আনতে চান? এতে কার লাভ হবে? বিএনপিকে উদ্দেশ করে তিনি বলেন, ধ্বংসাত্মক কার্যকলাপ পরিহার করুন, সাংবিধানিক কাঠামোর মধ্যে আপনাদের যে দাবি দাওয়া আছে তা পূরণ করা হবে।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *