সরোজগঞ্জ এলাকায় বিশ্বজিৎ বাহিনীর নামে লাখ লাখ টাকা চাঁদা দাবি

স্টাফ রিপোর্টার:  চাঁদাবাজ বিশ্বজিৎ কিছুতেই পিছু ছাড়ছে না নিরীহ মানুষের। এতোদিন সরোজগঞ্জ বাজারের আশপাশ গ্রামের লোকজনের নিকট চাঁদা দাবি করলেও এবার সরোজগঞ্জ বাজারের অধিকাংশ ব্যবসায়ীর নিকট চাঁদা দাবি শুরু করেছে সে। কিন্তু জীবনের ভয়ে কেউ মুখ খুলছে না। এ ব্যাপারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ভূমিকা রহস্যজনক বলে অভিযোগ করেছেন ব্যবসায়ীরা।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার সরোজগঞ্জসহ আশপাশ এলাকায় বিশ্বজিৎ বাহিনীর নামে বেপরোয়াভাবে চাঁদাবাজি করা হচ্ছে। কয়েক মাস ধরে মোবাইলফোনে ব্যাপকহারে এ বাহিনী নিরীহ মানুষের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা চাঁদা আদায় করেছে। তাদের হুমকির মুখে সাধারণ মানুষের রাতের ঘুম হারাম হতে চলেছে। তবে তাদের হুমকিধামকির মুখে কেউ টু শব্দটি পর্যন্ত করছে না। সম্প্রতি আশপাশ গ্রামে এ বাহিনীর নামে চাঁদাবাজি অব্যাহত রয়েছে। এলাকার কয়েকজন প্রাবাসীর পরিবার থেকেও আদায় করা হয়েছে মোটা অঙ্কের চাঁদা। এরই মধ্যে সরোজগঞ্জ বাজারের অধিকাংশ ব্যবসায়ীর কাছে ১০ হাজার থেকে শুরু করে ২ লাখ টাকা পর্যন্ত চাঁদা দাবি করা হয়েছে। জীবনের ভয়ে অনেকেই চাঁদার টাকা দিলেও এ ব্যাপারে কেউ মুখ খুলছে না। এ টাকা বিকাশ করে পাঠানো হচ্ছে বলে নির্ভরশীলসূত্রে জানা গেছে। একের পর এক চাঁদা দাবি করা হলেও প্রশাসন কোনো পদক্ষেপ না নেয়ায় ভুক্তভোগীরা হতাশ হয়ে পড়েছে। এলাকার ব্যবসায়ীরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। অবিলম্বে প্রশাসনের হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন তারা।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *