সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে লেখাপড়া বিঘ্নিত

 

স্টাফ রিপোর্টার: প্রধান শিক্ষকদের দ্বিতীয় শ্রেণির মর্যাদা প্রদান এবং সহকারী শিক্ষকদের একধাপ নিচে বেতন নির্ধারণের দাবিতে প্রাথমিক শিক্ষকদের আন্দোলন চলছে। এর অংশ হিসেবে দেশের বিভিন্ন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে কর্মবিরতি করছেন তারা। গত রোববার থেকে তারা স্কুলে স্কুলে তিন ঘণ্টার কর্মবিরতি পালন করেছেন। আজ তাদের ওই কর্মসূচি শেষ হলে কাল থেকে চার ঘণ্টার কর্মবিরতি পালন করবেন তারা। এরপর ২৩ সেপ্টেম্বর থেকে দাবি আদায়ে তারা ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্কুলে স্কুলে পূর্ণদিবস কর্মবিরতি পালন করার ঘোষণাও দিয়ে রেখেছেন। সারাদেশে প্রায় ৩৮ হাজার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়। শিক্ষাবর্ষের শেষের দিকে শিক্ষকদের এ কর্মবিরতির কারণে লাখ লাখ শিক্ষার্থীর লেখাপড়া দারুণভাবে বিঘ্নিত হচ্ছে।

উল্লেখ্য, শনিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষকরা তাদের অর্ধ-মাসব্যাপি কর্মসূচি ঘোষণা করেন। বাংলাদেশ প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির ব্যানারে ওই সংবাদ সম্মেলনে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ারুল ইসলাম তোতা, শিক্ষক নেতা জাহানারা খানম, জুলফিকার আলী, সুব্রত রায়, ওয়াহিদুর রহমান, আবুল কাসেম, মীর মাহবুবুর রহমান, সুবল চন্দ্র পাল, রিজিয়া সুলতানা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a comment

Your email address will not be published.