সতীনের ঘরে অশান্তির আগুন ॥ হাসপাতালে প্রথম স্ত্রী আন্না

স্টাফ রিপোর্টার: দু সন্তানের জননী আন্না সতীনের সাথে ঘর করতে গিয়ে অতিষ্ঠ হয়ে নিজেই নিজের শরীর ক্ষতবিক্ষত করেছে। গতকাল শনিবার সকালে তাকে দৌলাতদিয়াড় ফায়ার স্টেশনপাড়াস্থ স্বামী ডাবলু ড্রাইভারের বাড়ি থেকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
জানা গেছে, খুলনার মেয়ে আন্না খাতুনের সাথে আনুমানিক ১৩ বছর আগে দৌলাতদিয়াড় ফায়ার স্টেশনপাড়ার ডাবলু ড্রাইভার বিয়ে করে। বিয়ের পর এদের সংসারে দু কন্যা আসে। দাম্পত্য ভালোই চলছিলো। এর মাঝে গোপনে ডাবলু দ্বিতীয় বিয়ে করে। তিন মাস আগে ডাবলু তার দ্বিতীয় স্ত্রী সাইদা খাতুনকে বাড়িতে নিলে জ্বলে ওঠে অশান্তির আগুন। অন্তরে জ্বলা সেই আগুনেই ছারখার হওয়ারই বহির্প্রকাশ ঘটেছে গতকাল শনিবার সকালে। আন্না তার নিজের মাথা দেয়ালে ঠুকে এবাং কাঁইচি দিয়ে নিজের শরীর ক্ষতবিক্ষত করে জীবনপ্রদীটাই নেভানোর অপচেষ্টা চালিয়েছে। তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মুমূর্ষু আন্না খাতুন বলেছে, সতীন ঘরে আনার পর থেকেই সংসারে অশান্তি। ওই অশান্তির সতীনকে দূরে রাখতে বলেছিলাম। তাতে কাজ হয়নি। উল্টো আমার ওপরই উল্টো আচরণ করে স্বামী। সে কারণেই নিজেকে নিজেই মেরে ক্ষতবিক্ষত করেছি।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *