শ্বশুরবাড়িতে বউ নিয়ে এসে নির্যাতনের শিকার স্বামী

কার্পাসডাঙ্গা প্রতিনিধি: দামুড়হুদা উপজেলার কুড়ুলগাছি ইউনিয়নের ধান্যঘরা গ্রামে শ্বশুরবাড়ি স্ত্রীকে নিতে এসে দড়ি দিয়ে বেঁধে শ্বশুর, শ্যালক ও নিজের স্ত্রী বাটামপেটা করে জখম করেছে জামাইকে। গতকাল বুধবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলার দুর্গাপুর গ্রামের আ. হামিদের ছেলে জমির উদ্দিন (৩৫) তার স্ত্রী একই উপজেলার ধান্যঘরা গ্রামের নুহুর মেয়ে নাহারকে (২২) নিতে আসে। শ্বশুরবাড়ি অবস্থানের কিছুক্ষণ পরে জমিরের শ্বশুর নুহ ও তার শ্যালক জাহিদুল এবং তার স্ত্রী দড়ি দিয়ে গরুর গোয়ালঘরের বাঁশের খুঁটির সাথে বেঁধে ফেলে। এরপর বাটাম দিয়ে জমিরের শরীর রক্তাক্ত জখম করে দেয়। খবর পেয়ে কার্পাসডাঙ্গা ফাঁড়ি পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে জমিরকে উদ্ধার করে। আহত জমির জানান, আমি সকালে আমার স্ত্রীকে নিতে আসার পর আমার শ্বশুর ও শ্যালক আমার সাথে খারাপ আচরণ করতে থাকে। এ সময় আমাদের মাঝে কথা কাটাকাটি হয় একপর্যায়ে আমাকে জোর করে গরুর ঘরের বাঁশের খুঁটির সাথে দড়ি দিয়ে বেঁধে বাটাম দিয়ে মারতে থাকে আমার শ্বশুর, শ্যালক এবং আমার স্ত্রী। এদিকে জমিরের স্ত্রী নাহার জানান, আমি ৫ দিন আগে আমার স্বামীর বাড়ি থাকা অবস্থায় আমাকে আমার স্বামী মারধর করেছিলো। আমি আর তার কাছে যেতে চাই না।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *