শিবির নেতাদের মিষ্টি খেয়ে কারণ দর্শানো নোটিশ পেলেন ইবি ছাত্রলীগের তিন নেতা

ইবি প্রতিনিধি: কুষ্টিয়া ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের তিন নেতাকে মিষ্টি মুখ করালেন শিবির নেতা। এ কারণে ছাত্রলীগের তিন নেতাকে কারণ দর্শানোর নোটিশ দিয়েছে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি। গতকাল শনিবার এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, আসাদুল্লাহ ও আতিকুল্লাহ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রশিবিরের নতুন কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন। এ জন্য শনিবার সকালে তারা দলীয় টেন্টে গিয়ে ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার আহ্বায়ক শামীম খান, যুগ্মআহ্বায়ক আবুজর গিফারী গাফফার ও আহমেদ মাহফুজ সাজনকে মিষ্ট মুখ করান। এ ঘটনায় শামীম খানসহ তিনজনকে কারণ দর্শানো নোটিশ দিয়েছে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটি। তাদের সংগঠন থেকে কেন বহিষ্কার করা হবে না-এ মর্মে আগামী তিন দিনের মধ্যে কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বরাবর লিখিত জবাব দিতে বলা হয়েছে।

ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির দফতর সম্পাদক শেখ রাসেল স্বাক্ষরিত এক প্রেসবার্তার মাধ্যমে গতকাল সন্ধ্যায় এসব তথ্য জানানো হয়। বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগ নেতা মিজানুর রহমান বলেন, শিবিরের হামলায় সারাদেশে ছাত্রলীগের অংসখ্য নেতা-কর্মী নিহত ও আহত হয়েছে। তাদের হাতে ছাত্রলীগের রক্তের দাগ লেগে আছে। যে হাতে নেতা-কর্মীদের রক্ত সেই হাতে মিষ্টি খাওয়া চলে না।

এ ব্যাপারে শামীম খান বলেন, ‘নতুন কমিটি হওয়ায় শিবিরের সভাপতি আসাদুল্লাহ ক্যাম্পাসে শিক্ষার্থীদের মাঝে মিষ্টি বিতরণের সময় আমাদের টেন্টে এসে দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে দেখা করে সবাইকে মিষ্টি মুখ করান। সৌজন্যতার খাতিরে কিছুই করার ছিলো না। ইতঃপূর্বেও ক্যাম্পাসে যেকোনো ছাত্রসংগঠনের নতুন কমিটি হলে অন্য সংগঠনের নেতাদের মিষ্টিমুখ করিয়েছে। আমরা দেখেছি, আমাদের সাবেক কমিটির নেতারাও এটা করেছেন। কিন্তু এ বিষয়ে তখন কেউ কিছু বলেনি। কিন্তু এবার বিষয়টিকে দলের কিছু নেতা-কর্মী তাদের স্বার্থে অতিরঞ্জিত করে প্রচার করার চেষ্টা করেছে। তবে সংগঠনের স্বার্থে কেন্দ্রীয় কমিটির যেকোনো সিদ্ধান্তের প্রতি আমি শ্রদ্ধাশীল থাকবো।’

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *