রোগী হাসপাতালে নেয়ার পথে ছিনতাইকারীদের শিকার দীননাথপুরের একটি পরিবারের ৫ জন

দীননাথপুর-বেলগাছি সড়কে সন্ধ্যারাতে ছিনতাইকারীদের তাণ্ডব

 

স্টাফ রিপোর্টার: চুয়াডাঙ্গার বেলগাছি-দীননাথপুর সড়কের বটতলার অদূরে আবারও ছিনতাইকারীরা তাণ্ডব চালিয়েছে। গতরাত ৯টার দিকে মুখোশধারী উঠতি বয়সী ৬/৭ জনের একদল ছিনতাইকারী এক শিশু রোগী মা, চাচি, চাচাসহ থ্রিহুলার চালকের নিকট থেকে নগদ টাকা, সোনার গয়না ও মোবাইলফোন ছিনিয়ে নিয়েছে।

জানা গেছে, চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের শঙ্করচন্দ্র ইউনিয়নের দীননাথপুর গ্রামের আব্দুল আলিমের ছেলে তানভির মাদরাসাছাত্র। গতকাল মাদরাসার ছাদে উঠে আছড়ে পড়ে আহত হয়। তাকে নিয়ে তার মা, চাচা রবিউল ইসলাম, ফুফু চাদনীসহ চাচি রশিদা খাতুন একটি থ্রি হুইলারযোগে গতরাত ৯টার দিকে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালের উদ্দেশে রওনা হয়। পথিমধ্যে বটতলার অদূরে পৌঁছুলে একদল মুখোশপরা অস্ত্রধারী ছিনতাইকারীদের কবলে পড়ে। ছিনতাইকারীরা থ্রি হুইলারের গতিরোধ করে শিশু তানভিরের মা বেলি খাতুনের নিকট থেকে নগদ ৩ হাজার টাকা, চাচি রশিদার নিকিট থেকে নাকের ফুল, নগদ টাকা, মোবাইলফোন, ফুফু চাদনীর নিকট থেকে নগদ ২ হাজার ৫শ টাকাসহ মোবাইলফোন, চাচা সোনার নিকট থেকে নগদ ২শ টাকাসহ মোবাইলফোন ছিনিয়ে নেয়। এ সময় প্রতিবাদ করলে অসুস্থ তানভিরের মা বেলী খাতুনকে মারধরও করে ছিনতাইকারীরা। বেলগাছির দিকে থেকে দুটি মোটরসাইকেল আসতে দেখে দ্রুত বিলের দিকে নেমে যায় মুখোশধারী ছিনতাইকারীরা। মোটরসাইকেল আরোহী থামতেই ছিনতাইকারীরা হই হই করে ছুটে আসে। মোটরসাইকেল নিয়ে আরোহীরা দ্রুত ঘটনাস্থল ত্যাগ করে। থ্রী হুইলারযোগে শিশুকে নিয়ে তার মাসহ নিকটজনেরা হাসপাতালে পৌঁছান।

স্থানীয়রা বলেছে, মাঝে-মধ্যেই ছিনতাইকারীরা এ সড়কে তাণ্ডব চালায়। পুলিশি টহল না থাকার কারণে ছিনতাইকারীরা ইচ্ছে মতো ছিনতাই করে। গতরাতে ছিনতাইকারীদের সাথে উঠতি বয়সী বেশ কয়েকজন ছিলো বলে ছিনতাইয়ের শিকার নারী ও পুরুষেরা জানিয়ে পুলিশের আশু দৃষ্টি কামনা করেছে। এর আগে একই সড়কে ছিনতাইকারীদের ছুরিকাঘাতে প্রাণ হারিয়েছেন পুলিশের এক কনস্টেবল।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *