রোগীর শরীরে মেয়াদোত্তীর্ণ স্যালাইন পুশ : দারুস সালাম ক্লিনিকের ৫০ হাজার টাকা জরিমানা

 

মেহেরপুর অফিস: রোগীর শরীরে মেয়াদোত্তীর্ণ স্যালাইন পুশ করার অপরাধে মেহেরপুর দারুস সালাম ক্লিনিকের চিকিৎসক ও ব্যবস্থাপককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ ঘটনায় ওই ক্লিনিকের অভিযুক্ত নার্স পলাতক রয়েছেন। গতকাল শনিবার দুপুরের দিকে জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আমিনুল ইসলামের ভ্রাম্যমাণ আদালত ওই অর্থাদণ্ডাদেশ প্রদান করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ম্যাজিস্ট্রেট আমিনুল ইসলাম জানান, মুজিবনগর উপজেলার দারিয়াপুর গ্রামের ছনোয়ারা খাতুন (৬০) নামের এক রোগী পেটের পিড়া নিয়ে দারুস সালাম ক্লিনিকে ভর্তি হন। সকালে দায়িত্বরত নার্স ফেরদৌসী আক্তার জোসনা ওই রোগীর শরীরে অপসো কোম্পানির মেয়াদোত্তীর্ণ ডিএনএস স্যালাইন পুশ করেন। বিষয়টি টের পেয়ে রোগীর স্বজনরা সদর থানায় খবর দেন। পুলিশ এসে ক্লিনিকের ব্যবস্থাপক মাহাবুবুল হাসান শিমুলকে আটক করে। একই সময় পুলিশ ক্লিনিক থেকে মেয়াদোত্তীর্ণ ৩৭টি ডিএনএস স্যালাইন, সেফা-৪ এন্টিবায়োটিক ইনজেকশন ও ২ ফাইল আলজিরেক্স ট্যাবলেট উদ্ধার করে।

পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত ক্লিনিকের স্বত্বাধিকারী ডা. আব্দুস সালাম ও ব্যবস্থাপক সৈয়দ মাহাবুবুল ইসলাম শিমুলকে ভোক্তা অধিকার আইন ২০০৯’র (৫১) ও (৫২) ধারায় দোষী সাব্যস্ত করে যথাক্রমে ২০ হাজার ও ৩০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্দেশে জব্দকৃত ওষুধগুলো নষ্ট করা হয়েছে।

Leave a comment

Your email address will not be published.