রাষ্ট্রের চরম ক্ষতি করে সন্ত্রাস ও মাদক ॥ যেকোনো মূল্যে এর বিস্তাররোধ করতে হবে

কমিউনিটি পুলিশিং ডে উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গা মেহেরপুর ঝিনাইদহসহ সারাদেশে র‌্যালি ও আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত

মাথাভাঙ্গা ডেস্ক: দেশের প্রথমবারের মতো পালিত হয়েছে কমিউনিটি পুলিশিং ডে। গতকাল শনিবার দিবসটি উপলক্ষে চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর ও ঝিনাইদহসহ সারাদেশে র‌্যালি শেষে আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। আলোচনাসভায় বক্তারা বলেন, সন্ত্রাস ও মাদক পরিবার, সমাজ এবং রাষ্ট্রের চরম ক্ষতি করে। তাই যে কোনো মূল্যে সন্ত্রাস ও মাদকের বিস্তাররোধ করতে হবে। ‘জঙ্গি মাদক প্রতিকারে, জনতা পুলিশ এক কাতারে, পুলিশই জনতা, জনতাই পুলিশ’ এই দর্শনকে যথাযথভাবে কাজে লাগিয়ে জনগণ ও পুলিশের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতার মাধ্যমে দেশের জন্য কাজ করতে হবে। ১০ বছর আগের পুলিশ আর এখনকার পুলিশ এক নয়। একই সাথে জঙ্গি, মাদক ও সন্ত্রাসবাদ নিয়ন্ত্রণে পুলিশ বাহিনীর পাশাপাশি কমিউনিটি পুলিশও জোরালো ভূমিকা পালন করছে। বক্তারা বলেন, অপরাধ দমনে কমিউনিটি পুলিশ প্রতিনিয়ত নানা তথ্য-উপাত্ত পুলিশকে অবহিত করছে এবং সে আলোকে পুলিশ ব্যবস্থা গ্রহণ করে চলেছে। এর ফলে সামাজিক অপরাধের প্রবণতা অনেক কমে এসেছে। অপরাধ দমনে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পাশাপাশি সাধারণ জনগণকেও এগিয়ে আসতে হবে। তবে কমিউনিটি পুলিশিং ব্যবস্থা যদি আরও জোরদার করা যায় তাহলে পুলিশের কাজে তাদের সহযোগিতা যেমন পাওয়া যাবে, তেমনি সমাজে অপরাধ প্রবণতা অনেক কমে আসবে। বক্তারা আরও বলেন, পুলিশের সেবা কার্যক্রমকে মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে হবে। পুলিশকে বৃটিশ আমলের ধ্যান-ধারনা থেকে বের হয়ে আসতে হবে। সাধারণ মানুষের সহায়তায় পুলিশকে সমাজ থেকে অপরাধ দূর করতে হবে।
চুয়াডাঙ্গায় পুলিশ সুপারের কার্যালয় সকাল ১০টার দিকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা শিল্পকলা একাডেমি চত্বরে এসে শেষ হয়। পরে শ্রীমন্ত টাউন হলে আলোচনা সভার আয়োজন করে জেলা পুলিশ। এতে সভাপতিত্ব করেন পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান পিপিএম। প্রধান অতিথি ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা জাতীয় সংসদের হুইপ সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা প্রশাসক জিয়াউদ্দীন আহমেদ, জেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির আহ্বায়ক এসএম ই¯্রাফিল, সদস্য সচিব মনিরুজ্জামান ও জজ কোর্টের পিপি অ্যাডভোকেট শামসুজ্জোহা। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান পিপিএম। সহকারী পুলিশ সুপার (প্রভিশনাল) সুজয় সরকারের প্রাণবন্ত সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আব্দুল মোমেন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর ও আলমডাঙ্গা সার্কেল) তরিকুল ইসলাম, সহকারী পুলিশ সুপার (সদর) আহসান হাবিব, পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তাসহ বিভিন্ন সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
অনুষ্ঠানে জাতীয় সংসদের হুইপ সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এমপি সমাজ থেকে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসী কর্মকা-কে প্রতিহত করতে জেলার কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সকল সদস্যদের আহ্বান জানান। পরে কমিউনিটি পুলিশিং এ বিশেষ অবদান রাখায় খুলনা ডিআইজি মহোদয়ের পক্ষ থেকে জেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির আহ্বায়ক এসএম ই¯্রাফিল ও সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তোজাম্মেল হককে সম্মানা প্রদান করা হয়। একই অবদানের জন্য পুলিশ সুপার মহোদয়ের পক্ষ থেকে জেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সদস্য সচিব মনিরুজ্জামান, সদর উপজেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক নুরুজ্জামান, দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আবু জিহাদ ফখরুল আলম খান ও এএসআই তৌহিদুজ্জামানকে সম্মাননা তুলে দেন অতিথিবৃন্দ। সম্মাননা স্মারক প্রদান করা হয় অতিথিবৃন্দকে। পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতি অনুষ্ঠানে কমিউনিটি পুলিশিং থিম সং ও বিভিন্ন ধরনের গান পরিবেশন করেন জেলা শিল্পকলা ও জেলা পুলিশের শিল্পীবৃন্দ। এছাড়া চুয়াডাঙ্গার মাদক পরিস্থিতি ও অপরাধমূলক কর্মকা-ের ওপর ভিত্তি করে সহকারী পুলিশ সুপার (প্রভিশনাল) সুজয় সরকারের রচিত কবিতা পরিবেশন করেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (দামুড়হুদা ও জীবননগর সার্কেল) কলিমুল্লাহ ও সহকারী পুলিশ সুপার (প্রভিশনাল) আরিফুল ইসলাম।
আলমডাঙ্গা ব্যুরো জানিয়েছে, আলমডাঙ্গায় সকালে শহরে র‌্যালি, আলোচনাসভা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও শেষে কেককাটা হয়। আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ আকরাম হোসেনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিন। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাহাত মান্নান, কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সদস্য সচিব ইয়াকুব আলী মাস্টার, কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সিপিও এসআই জিয়াউর রহমান, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান কাজি খালেদুর রহমান অরুন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান শামীম আরা। পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) লুৎফুল কবীর ও এসআই মিজানুর রহমানের উপস্থাপনায় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হারদী ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম, সম্পাদক ভাংবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান কাওছার আহমেদ বাবলু, জেলা পরিষদের সদস্য আশাবুল হক ঠা-ুু, আবু মুসা, ইউপি চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম মন্টু, মিনাজ উদ্দিন, আমিনুল ইসলাম রোকন, দারুস সালাম, আবু তাহের, মোস্তাফিজুর রহমান রুন্নু, নুরুল ইসলাম, লুৎফর রহমান, আব্দুল হালিম, মাসুদ পারভেজ, আলমডাঙ্গা পৌর কাউন্সিলর জহুরুল ইসলাম স্বপন, গাফফার, সদর উদ্দিন ভোলা, মামুনুর রহমান হাসান, জাহিদুল ইসলাম, ফারুক প্রমুখ। অনুষ্ঠানে মাটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
দামুড়হুদা প্রতিনিধি জানিয়েছেন, দামুড়হুদায় র‌্যালিটি উপজেলা শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে থানা চত্বরে শেষ হয়। র‌্যালি শেষে কেক কাটার মধ্যদিয়ে কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। বেলা ১১টার দিকে দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি আবু জিহাদের সভাপতিত্বে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। কোরআন তেলাওয়াত করেন দামুড়হুদা মডেল থানা মসজিদের ইমাম আব্দুল হামিদ। প্রধান অতিথি ছিলেন দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল আলম ঝন্টু। বিশেষ অতিথি ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা আওয়ামী লীগের শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক ইউপি চেয়ারম্যান এসএএম জাকরিয়া আলম ও দামুড়হুদা আব্দুল ওদুদ শাহ ডিগ্রি কলেজের প্রিন্সিপাল কামাল উদ্দীন। উপস্থিত ছিলেন দর্শনা পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান সোহরাব হোসেন, আজিজুল হক আজিজ, খলিলুর রহমান ভূট্টু, মোহাম্মদ আলী শাহ মিন্টু, প্রভাষক শরীফুল আলম মিল্টন, শাহ মোহাম্মদ এনামুল করিম ইনু, শফিকুল ইসলাম শফি, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক নূরনবী, শিক্ষক নজরুল ইসলাম, বীর মুক্তিযোদ্ধা রুস্তম আলী, দামুড়হুদা প্রেসক্লাব সভাপতি হাবিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক বখতিয়ার হোসেন বকুল, আওয়ামী লীগ নেতা মোখলেছুর রহমান, ইউপি সদস্য আশাদুল হক, সাবেক ইউপি সদস্য আবুল হাশেম, দামুড়হুদা সদর ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক সাহেব আলী প্রমুখ। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি (তদন্ত) জিএম এমদাদুল হক। সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন সেকেন্ড অফিসার এসআই আনোয়ার হোসেন বাবু। এদিকে কমিউনিটি পুলিশিং কাজে বিশেষ অবদান রাখায় চুয়াডাঙ্গা পুলিশ সুপার কর্তৃক দামুড়হুদা মডেল থানার ওসি আবু জিহাদকে পুরস্কৃত করায় উপজেলা কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির পক্ষে সভাপতি সিরাজুল আলম ঝন্টু ও সদস্য সচিব এসএএম জাকারিয়া আলম পুলিশ সুপারকে আন্তরিক অভিনন্দন জ্ঞাপন করেছেন।
জীবননগর ব্যুরো জানিয়েছে, উপজেলা নির্বাহী অফিসার সেলিম রেজার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান আবু মো. আব্দুল লতিফ অমল। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হাজি হাফিজুর রহমান, উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যন আয়েশা সুলতানা লাকি, প্রেসক্লাব সভাপতি আনোয়ারুল কবির, উথলী ইউপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান, রায়পুর ইউপি চেয়ারম্যান তাহাজ্জত হোসেন, হাসাদাহ ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম ও সীমান্ত ইউপি চেয়ারম্যান মঈন উদ্দিন ময়েন। উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আব্দুস সালাম ঈশার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় এছাড়াও বক্তব্য রাখেন সীমান্ত ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মালেক মোল্লা, উথলী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সোহরাব হোসেন খান ও থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই শেখ সোয়েব আহমেদ। আলোচনা অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন থানা অফিসার ইনচার্জের দায়িত্বে থাকা ওসি (তদন্ত) আব্দুল্লাহ আল মামুন।
শেষে মুক্তমঞ্চে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। উপজেলা চেয়ারম্যান আবু মো. আব্দুল লতিফ অমল, ইউএনও সেলিম রেজা, মেয়র জাহাঙ্গীর আলম ও কাজি হাসানুজ্জামান বাবুলসহ শিল্পকলা একাডেমির ও স্থানীয় শিল্পীরা সঙ্গীত পরিবেশন করেন। অনুষ্ঠান সঞ্চলনার সহযোগিতায় করেন সাংবাদিক সালাউদ্দীন কাজল।
গাংনী প্রতিনিধি জানিয়েছেন, কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালন উপলক্ষে র‌্যালি ও আলোচনাসভা করেছে মেহেরপুরের গাংনী থানা। গতকাল শনিবার সকাল ১০টার দিকে গাংনী হাইস্কুল প্রাঙ্গণ থেকে একটি বর্নাঢ্য র‌্যালি শুরু হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে হাইস্কুলের সামনে ফিরে শেষ হয়। উপস্থিত ছিলেন গাংনী উপজেলা নির্বাহী অফিসার আরিফ-উজ-জামান, গাংনী থানার ওসি আনোয়ার হোসেনসহ, কমিউনিটি পুলিশিং সদস্য, শিক্ষক, ছত্রাছাত্রী, পুলিশসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ। পুলিশ-জনগণের মাঝে সু-সম্পর্ক তৈরি করার লক্ষ্য নিয়েই শুরু হয় কমিউনিটি পুলিশিং কার্যক্রম। এরই ধারাবহিকতায় পালিত হচ্ছে এ দিবসটি। র‌্যালি শেষে আলোচনাসভা ও সন্ধ্যায় গাংনী থানা চত্ব¡রে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করেন এলাকার বিভিন্ন পর্যায়ের শিল্পীবৃন্দ।
মুজিবনগর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মুজিবনগরে র‌্যালি ও আলোচনাসভা করেছে মুজিবনগর থানা পুলিশ। সকাল ১০টার দিকে মুজিবনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয় চত্বর থেকে মুজিবনগর থানা ইনচার্জ মোহাম্মদ মনিরুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি র‌্যালি বের হয়। উপজেলার প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মুজিবনগর থানা চত্বরে এসে শেষ হয়। পরে থানা চত্বরে আলোচনাসভায় মুজিবনগর থানা ইনচার্জ মোহাম্মদ মনিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাহিদা আক্তার। বিশেষ অতিথি ছিলেন সহকারী পুলিশ সুপার মুন্না বিশ্বাস, মুজিবনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জিয়াউদ্দীন বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক মহাজনপুর ইউপি চেয়ারম্যান আমাম হোসেন মিলু, মোনাখালী ইউপি চেয়ারম্যান মফিজুর রহমান, মুজিবনগর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইজারুল ইসলাম, সহকারী প্রধান শিক্ষক আলিফ হোসেন প্রমুখ। পরে সন্ধ্যা রাতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠান সঞ্চালনায় ছিলেন এসআই সব্রত কুমার পাল।
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি জানিয়েছেন, ঝিনাইদহে জমকালো আয়োজনে কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালিত হয়েছে। জেলা পুলিশের আয়োজনে শনিবার সকালে শহরের পুরাতন ডিসি কোর্ট চত্বর থেকে বর্ণাঢ্য র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে একই স্থানে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালির শুরুতে শান্তি প্রতীক পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়। পরে পুরাতন ডিসি কোর্ট চত্বরে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন ঝিনাইদহ-১ আসনের সংসদ সদস্য জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই। বিশেষ অতিথি ছিলেন ঝিনাইদহ-২ আসনের সাংসদ তাহজীব আলম সিদ্দিকী সমি, জেলা প্রশাসক জাকির হোসেন, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কমিউনিটি পুলিশের আহ্বায়ক কনক কান্তি দাস, ঝিনাইদহ প্রেসক্লাবের সভাপতি এম রায়হান, জেলা বাস-মিনিবাস মালিক সমিতির সভাপতি রোকনুজ্জামান রানু ও জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খালেদা খানম। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আজবাহার আলী শেখ। সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন সদর থানার ওসি এমদাদুল হক শেখ। অনুষ্ঠানের আলোচনা সভা শেষে বিশেষ অবদান রাখায় পুলিশ সদস্য ও কমিউনিটি পুলিশিং নেতৃবৃন্দকে সম্মাননা প্রদান করা হয়।
হরিণাকু-ু প্রতিনিধি জানিয়েছেন, হরিণাক-ু থানা অফিসার ইনচার্জ কেএম শওকত হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনাসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাইফুল ইসলাম, বিশেষ অতিথি ছিলেন সরকারি লালন শাহ কলেজের অধ্যক্ষ আতিয়ার রহমান, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (শৈলকুপা সার্কেল), তাকের আল মেহেদী, মেয়র শাহিনুর রহমান রিন্টু, ব্যবসায়ী রওশন আলী, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমা-ার মহি উদ্দীন, কমিউনিটি পুলিশিঙের উপজেলা সাধারণ সম্পাদক সাজেদুল ইসলাম টানু মল্লিক, ইউপি চেয়ারম্যান ছমির উদ্দীন, নাজমুল হুদা পলাশ, মুঞ্জুুরুল আলম, মোহাম্মদ আলী, ফজলুর রহমান ও গোলাম মোস্তফা, কাউন্সিলর খাইরুল ইসলাম ও ফারুখ হোসেন প্রমুখ। আলোচনা সভাশেষে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
মহেশপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, মহেশপুর কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির সভাপতি এটিএম খাইরুল আনামের সভাপতিত্বে আলোচনাসভা ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন ঝিনাইদহ-৩ আসনের সংসদ সদস্য নবী নেওয়াজ। বিশেষ অতিথি ছিলেন সাবেক সংসদ সদস্য ময়নুদ্দিন মিয়াজী, মহেশপুর পৌর মেয়র আব্দুর রশিদ খান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ময়জদ্দীন হামীদ, মহেশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আহম্মেদ কবির, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সাজ্জাদুল ইসলাম সাজ্জাদ, মীর সুলতানুজ্জামান লিটন, ইউপি চেয়ারম্যান ইসমাইল হোসেন ও সেলিম রেজা, মহেশপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি আব্দুর রহমান প্রমুখ। এর আগে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে।
কোটচাঁদপুর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, কোটচাঁদপুর উপজেলা পুলিশিং কমিটির আয়োজনে সমাজের সর্বস্তরের মানুষের উপস্থিতিতে কমিউনিটি পুলিশিং ডে পালিত হয়েছে। সকালে বাদ্যযন্ত্র সহকারে থানা চত্বর থেকে র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালি শেষে আলোচনাসভার আয়োজন করা হয়। জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে আয়োজিত আলোচনাসভায় থানার অফিসার ইনচার্জ বিপ্লব কুমার সাহার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন ঝিনাইদহ-৩ আসনের সংসদ সদস্য নবী নেওয়াজ। বিশেষ অতিথি ছিলেন পৌর মেয়র জাহিদুল ইসলাম, উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাজনীন সুলতানা, কোটচাঁদপুর সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ আব্দুর রাজ্জাক, সাবেক সংসদ সদস্য মইনুদ্দীন মিয়াজী, উপজেলা কমিউনিটি পুলিশের সভাপতি তাজুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক মীর কাশেম আলী, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শাহাব উদ্দীন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি শরিফুন্নেছা মিকি, আওয়ামী লীগ নেতা ফারজেল হোসেন, কাজী আলমগীর, যুবলীগ নেতা মীর মনিরুল আলম ও প্রেসক্লাব সভাপতি শেখ নজরুল ইসলাম। আলোচনা সভার পর স্থানীয় শিল্পীরা মনোজ্ঞ সঙ্গীত পরিবেশন করেন।

Leave a comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *